পরমাণু অস্ত্র প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দিলেন কিম

জাতিসংঘ নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর থেকে ফুঁসছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। এবার তিনি যে কোনো সময় ব্যবহারের জন্য পারমাণবিক অস্ত্র প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। খবর বিবিসির।

শুক্রবার দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে দেয়া এক ঘোষণায় কিম জং উন এ হুঁশিয়ারি দেন।

কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি জানায়, সামরিক মহড়া পরিদর্শনের সময় কিম জং উন বলেন, ‘যে কোনো মুহূর্তে পারমাণবিক যুদ্ধাস্ত্র নিক্ষেপের জন্য আমাদের অবশ্যই সব সময় প্রস্তুত থাকা উচিত।’

তিনি বলেন, ‘এই চরম সময়ে আমেরিকা আমাদের ওপর যুদ্ধ চাপিয়ে দিচ্ছে। উত্তর কোরিয়ার অস্তিত্ব নিয়ে শত্রুরা হুমকি দিচ্ছে। নিজেদের সার্বভৌমত্ব ও বাঁচার অধিকার রক্ষার একমাত্র উপায় পারমাণবিক সক্ষমতা বাড়ানো।’

হামলা চালানোর জন্য প্রয়োজনে উত্তর কোরিয়ার পুরো সামরিক কাঠামোকে ঢেলে সাজানোর কথাও জানান কিম জং উন।

গত বুধবার পারমাণবিক পরীক্ষা ও ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

নিষেধাজ্ঞা অনুযায়ি, উত্তর কোরিয়া থেকে আসা এবং দেশটির উদ্দেশে রওনা করা সব জাহাজে তল্লাশি চালানোসহ ১২টি প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

এ নিষেধাজ্ঞা আরোপের কয়েক ঘণ্টার মাথায় পাল্টা হিসেবে বৃহস্পতিবার দেশটি সাগরে ৬টি স্বল্পপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায়। এরপর দেশটির নেতার কাছ থেকে সবশেষ এ হুঁশিয়ারি এল।

এদিকে কিম জং উনের এ ঘোষণার পর যুক্তরাষ্ট্রও পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়েছে। পেন্টাগন তাৎক্ষণিক এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের বিধি-নিষেধ পাশ কাটিয়ে এ ধরনের উস্কানিমূলক তৎপরতা থেকে উত্তর কোরিয়ার বিরত থাকা উচিত।’

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

Related posts

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.