প্রবাসীদের ঘাড়ে কর চাপাচ্ছে সৌদি আরব, বাংলাদেশি শ্রমিকদের মাথায় হাত

প্রবাসীদের ঘাড়ে কর চাপাচ্ছে সৌদি আরব
Share Button

গত দু’বছরে সৌদি আরবের অর্থনীতিতে ধস নেমেছে। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দরপতন হওয়ায় তেল সমৃদ্ধ এই দেশটি ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো নিজ দেশে তেলের দাম বাড়িয়েছে ৮০ শতাংশ। এমনকি বিদেশি ব্যাংকের থেকে বড় অংকের অর্থ ঋণ নেয়ার কথাও জানিয়েছে দেশটির সরকার।

শুধু তাই নয়, আন্তর্জাতিক বাজারে টিকে থাকার জন্য ব্যক্তিগত বিনিয়োগকে প্রাধান্য দিয়েই তারা আবার এ অর্থনৈতিক সংস্কার শুরু করছেন। তাই এবার প্রবাসীদের আয়ের উপর জারি করা হচ্ছে কর। অথচ প্রবাসীদের আয়ের উপর এখন কোনো প্রকার কর দিতে হয় না। এই নীতির জন্য বহুবার প্রশংসাও কুড়িয়েছে সৌদি সরকার।

সৌদি আরবে কর্মরত প্রবাসীদের আয়ের উপর কর চাপানোর পরিকল্পনা করছে ওই দেশের সরকার। চলতি সপ্তাহেই প্রবাসীদের মোট আয়ের উপর ছয় শতাংশ কর আরোপ করার প্রস্তাব দিয়েছে সরকার।

আইনসভায় এ নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা হলেও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে আগামী সপ্তাহে। স্বভাবতই সরকারের এমন পরিকল্পনায় উদ্বিগ্ন প্রবাসী শ্রমিকরা। আয়ের উপর যাতে কর না বসানো হয় সেই আবেদনও জানিয়েছেন ওই দেশের প্রবাসী শ্রমিকেরা।

এদিকে সৌদি আরবে প্রবাসীদের মধ্যে বাংলাদেশিই বেশি। আরো ৫ লাখ কর্মী বাংলাদেশ থেকে নেয়া হবে বলেও জানিয়েছে দেশটি। কিন্তু আয়ের উপর কর চাপানো হলে দেশটি যেতে আগ্রহ হারাবে শ্রমিকরা। বাংলাদেশি ছাড়াও প্রতিবেশী ভারত, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানেরও অনেক কর্মী ওই দেশে কাজ করেন।

প্রবাসীদের আয়ের উপর কোনোপ্রকার কর দিতে হতো না ওই দেশের সরকারকে। এই নীতির জন্য বহুবার প্রশংসা কুড়িয়েছে সৌদি সরকার। সম্প্রতি এই নিয়ে প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়েছিল বহু ভারতীয় সংবাদপত্রে।

কিন্তু দিনকয়েকের মধ্যেই ঘটল বিপত্তি। সৌদি আরবে কর্মরত প্রবাসীদের আয়ের উপর কর চাপানোর পরিকল্পনা করছে ওই দেশের সরকার। চলতি সপ্তাহেই প্রবাসীদের মোট আয়ের উপর ছয় শতাংশ কর আরোপ করার প্রস্তাব দিয়েছে সরকার।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts