ফুসলিয়ে হোটেলে নিয়ে যুবতীকে ধর্ষণ

a-lady-raped-in-a-hotel

দিঘা যে আজও নিরাপদ নয় তা ফের একবার প্রমাণ হল। আর সেই সঙ্গে একটি হোটেলের ঘরে ধর্ষিত হলেন এক যুবতী। কিন্তু, তাঁর আর্ত চিৎকার হোটেলের কোনও কর্মী শুনতেই পাননি বলে দাবি করা হয়েছে। কিন্তু, ঠিকমতো পরিচয় যাচাই না করে কী ভাবে যুবতীর সঙ্গে থাকা যুবককে ঘর দেওয়া হয়েছিল তা নিয়েও কোনও সদুত্তর দিতে পারেনি হোটেল কর্তৃপক্ষ।

অশোক পাত্র নামে অভিযুক্ত যুবক এক যুবতীকে কাজ পাইয়ে দেবে বলে দিঘায় নিয়ে আসে। ওড়িশার ভদ্রক স্টেশনে ওই যুবতীর সঙ্গে পরিচয় ঘনিষ্ঠ করেছিলেন অশোক। যুবতীর কাজের প্রয়োজন ছিল। সেই সূত্র ধরেই অশোক ওই যুবতীকে দিঘায় দেখা করতে বলে। অশোকের কথা মতো মঙ্গলবার দিঘাতেও আসেন ওই যুবতী।

এরপর তাঁরা একটি হোটেলে ওঠেন। ভোররাতে যুবতীর প্রবল চিৎকার শুনে ছুটে আসেন হোটেল কর্মীরা। তাঁরাই বাইরে থেকে লাগানো দরজা খুলে হোটেলের ঘর থেকে যুবতীকে উদ্ধার করেন।

পরে, যুবতী জানান, মঙ্গলবার রাতে অশোক তাকে ধর্ষণ করে হোটেল ঘর থেকে পালিয়ে যায় এবং পালানোর সময় বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। দিঘা থানায় অশোকের বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের করেছেন ওই যুবতী।

কিন্তু, বারবার যে প্রশ্নটা সামনে আসছে, ঠিকমতো পরিচয়পত্র না দেখে কীভাবে অশোককে ঘর দিল হোটেল কর্তৃপক্ষ? অশোকের সঙ্গে হোটেল কর্মীদের আগের কোনও জানাশোনা আছে কি না তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ভদ্রক থানার মাধ্যমে যুবতীর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছে দিঘা পুলিশ।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts