মুসলিম মেয়েদের সাতারে বুরকিনি পরায় নিষেধাজ্ঞা স্থগিত

বুরকিনি

ফ্রান্সের কিছু শহরে মুসলিম মেয়েদের বুরকিনি বা পুরো-শরীর-ঢাকা সাঁতারের পোশাক পরার ওপর যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল – তা সাময়িকভাবে বাতিল করে দিয়েছে দেশটির সর্বোচ্চ প্রশাসনিক আদালত। একটি মানবাধিকার সংগঠন এ নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে মামলা করেছিল। খবর-বিবিসি বাংলা।

তাদের অভিযোগ ছিল ওই নিষেধাজ্ঞায় মুসলিম মেয়েদের যেমন ইচ্ছা তেমন পোশাক পরার স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ করা হয়েছে।

ফ্রান্সের সমুদ্রতীরবর্তী প্রায় ত্রিশটি শহরে সমুদ্র-সৈকতে বুরকিনি পরা নিষিদ্ধ করে আদেশ জারি করেছিল।
তার মধ্যে মাত্র একটি শহরের ব্যাপারে এই মামলায় শুনানি হয়।

কিন্তু আদালতের রায়ের অর্থ হচ্ছে, ফ্রান্সের যেসব শহরে বুরকিনি নিষিদ্ধ করা হয়েছে – তার সবগুলোই এর আওতায় পড়বে এবং নিষেধাজ্ঞা সম্ভবত বাতিল হয়ে যাবে। এ বছর জুলাইয়ের ১৪ তারিখ নিস শহরে ট্রাক নিয়ে যে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়েছিল – তার পর ভিলেন্যুভ-ল্যুবেত শহরের মেয়র মুসলিম মহিলাদের বুরকিনি পরা নিষিদ্ধ করে এক আদেশ জারি করেছিলেন।

বলা হয়েছিল, জনশৃঙ্খলার প্রতি হুমকির কথা বিবেচনা করেই এ আদেশ জারি করা হয়েছে। কিন্তু স্টেট কাউন্সিল নামের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক আদালত তার রুলিংএ বলেছে, জনশৃঙ্খলার প্রতি “সুনির্দিষ্ট ঝুঁকি” সৃষ্টি না হলে এভাবে জনগণের স্বাধীনতা খর্ব করার ক্ষমতা কোন পৌর কর্তৃপক্ষের নেই ।

রুলিংএ বলা হয়, সমুদ্রসৈকতে বুরকিনি পরাকে এ ধরণের হুমকি বলে বিবেচনা করা চলে না। আদালতের চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত পেতে আরো কিছু দিন লাগবে বলে জানা গেছে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts