যৌনকর্মীর সঙ্গে ব্রিটিশ মন্ত্রীর সম্পর্ক

যৌনকর্মীর সঙ্গে ব্রিটিশ মন্ত্রীর সম্পর্ক
Share Button

একজন যৌনকর্মীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিল বলে স্বীকার করেছেন যুক্তরাজ্যের সংস্কৃতিমন্ত্রী জন হুইটিংডেল।

অবশ্য হুইটিংডেল দাবি করেছেন, সম্পর্ক থাকার সময় ওই নারীর পেশা কী তা তিনি জানতেন না।

তিনি বলেন, ওই নারী তার সঙ্গে সম্পর্ক থাকার ঘটনাটি সংবাদপত্রের কাছে বিক্রি করার চেষ্টা করছে এমন বিষয় আবিষ্কার করার পর ওই নারীর সঙ্গে ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতেই সম্পর্কচ্ছেদ করেন।

ব্রিটিশ মন্ত্রিসভার সদস্য হওয়ার আগে তার সঙ্গে ওই নারীর সম্পর্ক ছিল বলেও এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন জন হুইটিংডেল।

তবে ওই সময় তিনি ব্রিটিশ পার্লামেন্টের প্রভাবশালী পদ সংস্কৃতি, গণমাধ্যম ও খেলাধুলা বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন।

বিবিসি নিউজনাইটকে জন হুইটিংডেল বলেছেন, ‘২০১৩ সালের আগস্ট মাস থেকে ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আমার সঙ্গে একজনের সম্পর্ক ছিল, যার সঙ্গে ম্যাচডটকম ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রথম পরিচয় হয়েছিল। তিনি আমার বয়সী ছিলেন এবং আমার কাছাকাছিই বাস করতেন।’

তিনি বলেন, ‘কখনোই তিনি তার প্রকৃত পেশা সম্পর্কে আমাকে কিছুই জানাননি। কিন্তু যখন আমাকে জানানো হয়- কেউ আমার সম্পর্কে ট্যাবলয়েড সংবাদপত্রে একটি গল্প বিক্রি করার চেষ্টা করছে, তখনই বিষয়টি আমি আবিষ্কার করি। আর তা জানার সঙ্গে সঙ্গেই আমি সম্পর্ক ভেঙ্গে ফেলি।’

সূত্র: বিবিসি বাংলা।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts