সরকারি চাকরি পেতে বাবাকে খুন

muder

প্রত্যেক বছরেই সরকারি চাকরির পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছিল এক যুবক। কিন্তু কোনও পরীক্ষাতেই সফল হতে পারছিল না সে। শেষে তার নজর গিয়ে পড়ল বাবার উপর। সরকারি চাকরি পেতে নিজের বাবাকেই খুনের চেষ্টা করল সেই যুবক।
এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, অভিযুক্ত কীর্তিমান ছেলের নাম পবন মণ্ডল।

গত বুধবার বিহারের মুঙ্গেরে ওমপ্রকাশ মণ্ডল নামে এক প্রৌঢ়কে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করা হয়। ঘটনার সিটিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে তদন্তে নামে পুলিশ। সেই সূত্র ধরে রবি রঞ্জন নামে এক দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে উঠে আসে ঘটনায় জড়িত আর এক দুষ্কৃতী সুনিল মণ্ডল। তাকেও গ্রেফতার করে পুলিশ। শেষে তাদের জেরা করেই গ্রেফতার করা হয় আহত প্রৌঢ়ের ছেলে পবন মণ্ডলকে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ওমপ্রকাশ মণ্ডল রেলে চাকরি করতেন। সেই চাকরিটি হাতানোর জন্য ছক কষেছিল তাঁরই সন্তান পবন। এপ্রিল মাসের ৩০ তারিখ চাকরি থেকে অবসর নেওয়ার কথা ছিল ওমপ্রকাশের। তার আগে যদি তিনি খুন হয়ে যান, তা হলে সেই চাকরিটি পেয়ে যেত পবন। সেই ভাবনা থেকেই সুপারি কিলার লাগিয়ে বাবাকে খুনের ফন্দি আঁটে ছেলে। কিন্তু দুষ্কৃতীদের গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে কাঁধে লাগায় প্রাণে বেঁচে যান ওমপ্রকাশ।

জানা গিয়েছে, ওমপ্রকাশ স্থানীয় একটি রেলের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে চাকরি পেতে কোনও সন্তান কী করে নিজের বাবাকেই হত্যা করার চেষ্টা করতে পারে, তা ভেবেই অবাক হয়ে যাচ্ছেন অনেকে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts