হিন্দু ধর্ম সবচেয়ে হিংসাত্মক হয়ে উঠেছে বললেন বলিউড অভিনেত্রী উর্মিলা মাতোন্ডকর

বলিউড অভিনেত্রী উর্মিলা মাতোন্ডকর

বলিউড অভিনেত্রী উর্মিলা মাতোন্ডকর হিন্দু ধর্মকে সবচেয়ে হিংসাত্মক বলে মন্তব্য করেছেন!

কংগ্রেসে যোগ দেওয়া এই অভিনেত্রী বলেন, নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে হিন্দুধর্ম সবথেকে বেশি হিংসাত্মক হয়ে উঠেছে। যে ধর্ম সবথেকে বেশি শান্তিপ্রিয় ছিল, সেই ধর্মই আজ হিংসাত্মক হয়ে উঠেছে। মোদি সরকারের আমলে এটাই আমি সবথেকে বেশি ঘৃণা করি।’

দেশে মত প্রকাশের কোনো স্বাধীনতা নেই। দেশে হিংসাই একমাত্র পথ হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার পর থেকেই তাকে নিয়ে শুরু হয় ট্রোল। বছর কয়েক আগে এক কাশ্মীরি ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেন উর্মিলা।

তিনি কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার পরই অনেক বলতে থাকেন তিনি নাকি ধর্মান্তরিত হয়েছেন। ফেসবুকে ট্রোলও শুরু হয়ে যায়। এদিকে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, উর্মিলার জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়েছে বিজেপি। তাই এ সব অপপ্রচার চালানো হচ্ছে তার নামে।

উল্লেখ্য, কংগ্রেসের হয়ে ভোটে দাঁড়িয়ে দীর্ঘদিন পর আবার শিরোনামে আসেন উর্মিলা মাতোন্ডকর। উত্তর মুম্বাই লোকসভা কেন্দ্র থেকে ভোটে দাঁড়িয়েছেন তিনি, শুরু করেছেন ভোট প্রচারও। সঙ্গে থাকছেন স্বামী মহসিন আখতার মির। আর তাকে নিয়েই শুরু হয়েছে নানা জল্পনা।

বয়সে উর্মিলা মহসিনের থেকে ৯ বছরের বড়। তাদের পরিবারের এমব্রয়ডারির ব্যবসা রয়েছে। কিন্তু মহসিন ব্যবসার থেকে মডেলিংয়ে আগ্রহী বেশি। ২১ বছর বয়সে তিনি মুম্বাই চলে আসেন মডেল হিসেবে কেরিয়ার শুরু করতে। ২০০৭-এ মিস্টার ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় যোগ দেন। কিছু মিউজিক অ্যালবাম ও বিজ্ঞাপনে দেখা যায় তাকে। ২০০৯ সালে লাক বাই চান্স ছবিতে তাকে এক ছোট চরিত্রে দেখা যায়।

উর্মিলা-মহসিনের প্রথম সাক্ষাৎ করান ফ্যাশন ডিজাইনার মনীশ মালহোত্রা। মনীশ তাদের দুজনেরই ঘনিষ্ঠ, ২০১৪ সালে তার ভাইঝির বিয়েতে দুজনেই আমন্ত্রিত ছিলেন। এর ২ বছর পর বিশেষ লোক জানাজানি না করে বিয়ে করে ফেলেন তারা। মহসিন বলেছেন, বিয়ের পর উর্মিলা তার নাম, ধর্ম কিছুই বদলাননি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts