যেভাবে গ্রেফতার হল সাফাতের বডিগার্ড ও গাড়িচালক

সাফাতের বডিগার্ড রহমত ও গাড়িচালক বিল্লাল
Share Button

ঢাকার বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদের গাড়িচালক ও বডিগার্ডকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার রাতে রাজধানীর গুলশান ও পুরান ঢাকার নবাবপুর থেকে এ দুজনকে র‌্যাব ও পুলিশ গ্রেফতার করে।

রাত ৮টার দিকে র‌্যাব-১০ এর একটি দল নবাবপুরের একটি আবাসিক হোটেল থেকে গাড়িচালক বিল্লালকে গ্রেফতার করে।

এর মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যে ডিবি পুলিশ গুলশান ১ নম্বর সার্কেল থেকে বডিগার্ড রহমত আলীকে গ্রেফতার করে।

তবে বডিগার্ড হিসেবে যোগদানের সময় রহমত তার প্রকৃত নাম গোপন করে আবুল কালাম আজাদ পরিচয় দেয়।

টেলিফোনে যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার শেখ নাজমুল আলম।

প্রসঙ্গত, ২৮ মার্চ বন্ধুর সঙ্গে জন্মদিনের অনুষ্ঠানে গিয়ে বনানীর ‘দ্য রেইনট্রি’ হোটেলে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণের শিকার হন বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই দুই ছাত্রী।

ওই ঘটনায় ৬ মে রাজধানীর বনানী থানায় আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদ, সাফাতের বন্ধু নাঈম আশরাফ (সিরাজগঞ্জের আবদুল হালিম) ও সাদমান সাকিফ, গাড়িচালক বিল্লাল ও অজ্ঞাতনামা একজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন তারা।

সিলেট থেকে গ্রেফতার সাফাত ও সাকিফকে রিমান্ডে নিয়ে বর্তমানে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে নাঈম আশরাফকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts