আনারসের গুনাগুন

pine-apple
Share Button

আনারস একটি গ্রীষ্মকালীন ফল। এটি সবার পরিচিত রসালো, সুস্বাদু ও পুষ্টিকর ফল। আমাদের দেশে মার্চ-আগস্ট মাস পর্যন্ত প্রচুর পরিমাণে আনারস পাওয়া যায়। এটি আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী।

আসুন এই আনারস সম্পর্কে কিছু মজার মজার তথ্য জানি:

প্রতিটি আনারস উদ্ভিদ থেকে বছরে মাত্র একটি ফল পাওয়া যায়।

কাঁচা আনারস শুধু খারাপ স্বাদযুক্ত নয়, এটি বিষাক্তও বটে। কাঁচা আনারস খেলে মারাত্মকভাবে গলা চুলকাবে।

আনারস খুব ধীরে ধীবে বড় হতে থাকে। এটি পূর্ণ আকার হতে দুই বছর পর্যন্ত সময় নিতে পারে।

এ পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে বড় আনারসটির আকার ছিল ৮.২৮ কেজি।

আপনি আনারসকে দ্রুত পাকাতে পারবেন। এজন্য আনারসকে উল্টা করে রেখে দিবেন। অর্থাৎ যে পাশে পাতা হয় তা নিচের দিকে রাখতে হবে।

এটিকে মূত্রবর্ধক হিসেবে খাওয়া যায়। তাছাড়া এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, এ, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, পটাশিয়াম থাকে। যেগুলো শরীরের ক্লান্তি দূর করে, চোখের জ্যোতি বৃদ্ধি করে, হাড় ও দাঁতের গঠন ঠিক রাখে। এতে ফ্যাট ও কোলেস্টেরল কম থাকায় ওজন কমাতে সহায়তা করে।

আনারসে ব্রোমেলিন নামক এনজাইম থাকে যা প্রোটিনকে ভাঙ্গতে পারে। তাই মাংস নরম করতে আনারস অথবা আনারসের জুস ব্যবহার করতে পারেন।
ব্রোমেলিন এনজাইম থাকায় তাজা আনারসকে জেলীতে রাখা যায় না। কারণ এটি জেলাটিন ভেঙ্গে ফেলে। তবে আনারস কেটে স্লাইস করে তা পানিতে অথবা আনারসের জুসে সিদ্ধ করলে এ সমস্যা হয় না। তাছাড়া ক্যানিং করেও রাখা যায়।

আনারস ও দুধ এক সাথে খাওয়া যায় না! আনারস খাওয়ার সময় এ কথাটি শোনা হয়নি এমন লোকের সংখ্যা খুব কমই আছে। তাছাড়া এই লেখাটি যখন পড়ছেন তখনও আপনার মনে এই প্রশ্ন হয়ত জেগে উঠেছে। সত্যিকারার্থে এটি একটি ভুল ধারণা।

যে কোন ফলকে দুধের সাথে মেশানো হলে ফলের এসিডের কারনে দুধ ছানা হয়। এটি এনজাইমের কারনেও হতে পারে। আনারসের ব্রোমেলিন নামক এনজাইমটি দুধকে ছানা বানিয়ে ফেলে। এক্ষেত্রে আনারস পেপটিডাইজ্ড বিক্রিয়া করে। যার দরুণ দুধের গন্ধ মাংসের ন্যায় হয়। ভয় পাবেন না।

আজকাল দুধ আর আনারস মিশিয়ে অনেক সুস্বাদু খাবার তৈরি হচ্ছে। তাই আনারস ও দুধ একসাথে খেলে আপনি মারা যাবেন না। তবে দুধ ও আনারসে আপনার এলার্জি থাকলে না খাওয়াই ভাল।

লেখক: ডা. মো. সাইফুল ইসলাম, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts