বসন্ত ও ভালোবাসা দিবসের সাজ

বসন্ত ও ভালোবাসা দিবসের সাজ
Share Button

ফাগুন আর ভালোবাসা মানেই উৎসব। এ সময়ের পোশাকে আর সাজে থাকে রঙের বৈচিত্র্য পোশাকটা একটু বেশিই রঙিন, তাই সাজের রংটা একটু পরিমিত। বিস্তারিত জানাচ্ছেন— মনীষা আক্তার

পয়লা ফাল্গুন আর ভালোবাসা দিবস দুটি দিনই আমাদের অনেক কাঙ্ক্ষিত উৎসবে রূপ নিয়েছে। আর দুটি দিনই আসে প্রায় একই সঙ্গে। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি পরপর দুই দিনই আমাদের জন্য বিশেষ। বিশেষ করে যারা সারা বছর অপেক্ষা করে থাকি, আর নানা রঙে সাজার উপলক্ষ খুঁজি। বিশেষ এই দিনে আমরা সবাই চাই নিজেকে সবচেয়ে সুন্দর আর আকর্ষণীয়ভাবে প্রিয়জনের সামনে উপস্থাপন করতে।

ফাল্গুনের দিনে এবং ঘরের বাইরে সবখানেই উৎসবের আমেজ। আর তাই তো সাজটাও হওয়া চাই হালকা ও পরিপাটি। ফাগুনের উৎসবের আমেজে ভালোবাসার মানুষটির পাশেও থাকা চাই এর জন্য নিজের সাজটিও হতে হবে আকর্ষণীয়। আপনার সাজের আগে অবশ্যই তৈলাক্ত ত্বকটি ভালো করে ফেসওয়াশ করে সানস্ক্রিন বুলিয়ে নিন। মেকআপে বেইজ তৈরি করা সবচেয়ে জরুরি। গায়ের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে অয়েল বা ওয়াটার বেইজড ফাউন্ডেশন লাগান।

মুখে, গলায় ও ঘাড়ে সমানভাবে ব্লেন্ড করুন। এরপর কমপ্যাক্ট পাউডারের প্রলেপ দিন। বসন্তের সময় হালকা আইশ্যাড মানানসই। চোখের নিচের পাতায় কাজলের হালকা রেখা আর উপরের পাতায় আইলাইনার টানতে পারেন। কমপক্ষে দুবার মাশকারা লাগান। দিনের সাজে হালকা করে ব্লাশন নিয়ে নিন, হাসলে গালের যে অংশ ফুলে ওঠে সেখানেও ব্লাশন ব্যবহার করুন। এরপর লিপস্টিক দিন। ফাগুনের সাজে ঠোঁট একটু কালারফুল হলেই ভালো দেখাবে।

সঙ্গে টিপ লাগাতে ভুলবেন না, কারণ বাসন্তী সাজে টিপ দারুণ মানায়। এখনো শীতের আমেজ রয়েছে তাই যে কোনো পোশাকের সঙ্গে ব্লো-ডাই বা আয়রন করে চুল ছেড়ে রাখতে পারেন। চুলে গুঁজে দিন তাজা বসন্তের ফুল। চুলে খোঁপা করলে তাজা ফুলের মালা পরতে ভুলবেন না। চলুন দেখে নেওয়া যাক কিছু টিপস—

দিনের বেলায় হালকা করেই সাজুন। শাড়ির পাড়ের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে টিপ পরে নিন, হাতে পরে নিন ম্যাচিং করা কাচের চুড়ি। গলা ও কানে অ্যান্টিক, পাট, সুতা, বাঁশ এমনকি মাটির গহনাও পরতে পারেন। চটি স্যান্ডেল জোড়া বেছে নিলেই ভালো হবে। ব্যাগে রাখুন ময়েশ্চারাইজার, সানস্ক্রিন, ফেসিয়াল টিস্যু, এক বোতল পানি এবং আপনার প্রয়োজনীয় সব কসমেটিক্স।

►দিনের শেষে চুলটাও খুব নিষ্প্রভ হয়ে যায়। মেকআপ তোলার পর চুলের গোড়ায় তেল ম্যাসাজ করুন।

►অনেকেই দুপুরে ঘরে ফিরে আবার বিকালে বের হন। এই অল্প সময়ে মেকআপ না করে আগের মেকআপটাই একটু ঠিকঠাক করে নিন।

►মাঝারি আকারের ব্যাগ নিন যাতে পানির বোতল, ছাতাসহ প্রয়োজনীয় সবকিছু রাখা যায়। আবার শাড়ির সঙ্গে বটুয়া ভালো মানায়। চাইলে মানানসই ক্লাচও ট্রাই করতে পারেন।

►যারা সারা দিন বাইরে ঘোরাঘুরি করবেন তারা হাই হিল ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। একেবারে ফ্ল্যাট না চাইলে পরতে পারেন সেমি ফ্ল্যাট জুতো।

►বাইরে ঘোরাঘুরির ফলে ত্বক ঘেমে মেকআপ নষ্ট হতে পারে। ঘাম হলে ভেজা স্পঞ্জ বা ওয়েট টিস্যু দিয়ে চেপে চেপে ত্বক মুছে ফেলুন।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment