এমপিদের বেতন-ভাতা দ্বিগুণ হচ্ছে

C__Data_Users_DefApps_AppData_INTERNETEXPLORER_Temp_Saved Images_2016_04_18_22_04_35_cAzg6E9OlFeGYbQWPbuS0WqBfsxNcc_original
Share Button

সংসদ সদস্যদের অফিস খরচ ৬ হাজার টাকা বাড়িয়ে ‘মেম্বার অব পার্লামেন্ট (রেমুন্যারেশন অ্যান্ড অ্যালাউন্সেস) অ্যামেন্ডমেন্ট অ্যাক্ট-২০১৬’ নামের বিলটি নিয়ে সৃষ্ট জটিলতার নিষ্পত্তি করা হয়েছে।

সোমবার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিলটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চূড়ান্ত করা হয়েছে। সংসদের আগামী ১০ম জাতীয় সংসদের ১০ম অধিবেশনে বিলটি পাস হওয়ার কথা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, সংসদ সদস্যদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি সংক্রান্ত বিলটি গত ২৪ জানুয়ারি সংসদ অধিবেশনে উত্থাপন করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। পরে তা অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

তবে ২৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকের বিলের বিষয়ে আপত্তি জানায় কমিটির সদস্যরা। তারা বলেন, সচিবরা ৮২ হাজার টাকা বেতন পেলেও প্রস্তাবিত আইনে সংসদ সদস্যদের জন্য ৫৫ হাজার টাকা সম্মানি ভাতা রাখা হয়েছে। এটি কোনোভাবেই কাম্য হতে পারে না। সার্বভৌম ক্ষমতার অধিকারী জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে সংসদ সদস্যরা শুধু আমলা কেন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের চেয়েও বেশি বেতন পাওয়ার দাবি রাখেন। যা করা হয়েছে সেটি খুবই সম্মানহানিকর। প্রয়োজনে সম্মানিভাতা এক টাকা করা হোক, কিন্তু সম্মানটা যথাযথ দেয়া হোক। এরপর কমিটি একাধিক বৈঠক করলেও কোনো সমাধানে পৌঁছাতে পারেনি।

কমিটি সূত্র জানায়, আগের বৈঠকে আলোচিত ওই বিলটি ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত হলেও আজ সোমবার বৈঠকে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার উপস্থিতিতে বিষয়টি নিয়ে আবারো আলোচনা হয়।

সেখানে সংসদ সদস্যদের অফিস খরচ ৯ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৫ হাজার টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব করা হয়। যার মাধ্যমে সচিবদের থেকে সংসদ সদস্যদের বেতন-ভাতা বেশি হবে। কমিটির সভাপতি সুরঞ্জিত সেনগুপ্তসহ উপস্থিত সদস্যরা এই প্রস্তাব মেনে নেন। এরপর বিলটি সংশোধনীসহ পাসের সুপারিশ করে সংসদে প্রতিবেদন উত্থাপনের সিদ্ধান্ত হয়।

সংশ্লিষ্টরা জানায়, সংসদে উত্থাপিত বিলটি পাস হলে সংসদ সদস্যদের বেতন-ভাতা দ্বিগুন হবে। এই বিলে সংসদ সদস্যদের বেতন ২৭ হাজার ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫৫ হাজার টাকা; ব্যয় নিয়ামক ভাতা তিন হাজার টাকার পরিবর্তে পাঁচ হাজার টাকা; দৈনিক ভাতা ৩০০ টাকার স্থলে ৭৫০ টাকা; স্বেচ্ছাধীন তহবিল তিন লক্ষ থেকে বাড়িয়ে ৫ লক্ষ টাকা; নির্বাচনী এলাকার খরচ (মাসিক) ৭ হাজার ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১২ হাজার ৫০০ টাকা; পরিবহন খরচ ভাতা (মাসিক) ৪০ হাজারের পরিবর্তে ৭০ হাজার টাকা; অভ্যন্তরীণ ভ্রমণ (বার্ষিক) খরচ ভাতা ৭৫ হাজার টাকা হতে বাড়িয়ে এক লক্ষ ২০ হাজার টাকা; লন্ড্রি ভাতা (মাসিক) এক হাজার থেকে বাড়িয়ে দেড় হাজার টাকা এবং ক্রোকারিজসহ অন্যান্য ভাতা চার হাজার টাকা থেকে বাড়ি

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts