নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছেঃ সিইসি

প্রথম ধাপের ৭১২ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সুষ্ঠু শান্তিপূর্ণভাবে অুনষ্ঠিত হয়েছে বলে দাবি করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকীবউদ্দিন আহমদ।

মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) মিডিয়া সেন্টারে ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচনের পরিস্থিতি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।

সিইসি বলেন, ‘৭১২ ইউপির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া ভোটারদের ব্যাপাক অংশগ্রহণের মাধ্যমে সুষ্ঠু শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশেষ করে নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিলো বেশি। ভোটাররা নির্ভয়ে ভোটকেন্দ্রে এসেছেন, ভোট দিয়ে ফিরে গেছেন। তবে যে কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে তা দুঃখজনক। বেশ কিছু কেন্দ্রে অনিয়মের ঘটনা ঘটেছে। সেসব কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ বাতিল করা হয়েছে। গত রাতেও কিছু বেআইনী কার্যক্রম হয়েছে।’ এসব ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘বেআইনী কার্যক্রমের জন্য ৫৬টি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে।’

নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য বলা যাবে কি না? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই, নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হয়েছে বলা যাবে।’

বিএনপি ও জাতীয় পার্টি অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রত্যেকের নিজস্ব একটা অবস্থান আছে। তাদের এ অবস্থান থেকে এসব দাবি এসেছে। ভোট কেমন হয়েছে সবাই দেখেছে। প্রযুক্তি নির্ভর দেশে এগুলো লুকাবার কিছুই নাই।’

আইনশৃঙ্খলা রক্ষকারী বাহিনীর প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করে কাজী রকীবউদ্দিন বলেন, ‘ভোট সুষ্ঠু করার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সরকার আমাদের সহযোগিতা করেছে। বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার বিরুদ্ধে আমরা অ্যাকশন নিচ্ছি। রাতে দুই জায়গায় স্টাইপিং হয়েছে ফায়ারও করা হয়েছে। জড়িতদের থানায় সোর্পদ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘কিছু জায়গায় গোলযোগ-সংর্ঘষ হয়েছে, পুলিশ সেসব জায়গায় প্রতিরোধ করলো না। আমরা এগুলো দেখছি। রাতেও এসব বিষয়ে কিছু অ্যাকশন নেয়া হবে।’

নির্বাচনে কত শতাংশ ভোট পড়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কত শতাংশ ভোট পড়েছে এটা এখনেই বলা যাবে না। তবে ভোটার উপস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে বেশ সংখ্যক ভোট পড়েছে।’

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment