বিডিআর বিদ্রোহের রায়ে সন্তুষ্ট নয় বিএনপি

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
Share Button

পিলখানার বিডিআর বিদ্রোহে ৫৭ সেনা কর্মকর্তাদের হত্যা করে তারাই লাভবান হয়েছে যারা দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভেঙ্গে দিতে চেয়েছিল, বলেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

গোয়েন্দা তদন্ত ব্যর্থতার কারণে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। রায়ের পর্যবেক্ষণ সঠিক হয়নি বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউশন সেমিনার হলে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপার বিশেষ জাতীয় কাউন্সিল ২০১৭ উপলক্ষ্যে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, স্বাধীনতা খর্ব করে সুপরিকল্পিতভাবে দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্র করার ষড়যন্ত্র চলছে। এছাড়া, আলাপ আলোচনার মাধ্যমে একটি গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠায় সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মির্জা ফখরুল আরও বলেন, সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে এমন একটি সহায়ক সরকার দিন যে সরকার নির্বাচনকালীন সময়ে ইসিকে সহায়তা করবে।

উল্লেখ্য, পিলখানা হত্যাকাণ্ডের মামলায় মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত ১৫২ জনের মধ্যে ডিএডি তৌহিদসহ ১৩৯ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট। ১৪৬ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ এবং ২৫৬ জনের মধ্যে ১৮২ জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড সহ ১৯৬ জনের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা বহাল রয়েছে। ১৬০ জনের আর্থিক দণ্ড বাতিল। ২৯ জনকে খালাস দিয়েছে আদালত।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) বিকেলে দেশের সবচেয়ে আলোচিত এ মামলায় ডেথ রেফারেন্স ও আপিলের রায় পড়া শুরু করেন বিচারপতি মো. শওকত হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বিশেষ হাইকোর্ট বেঞ্চ। বেঞ্চের অন্য দুই সদস্য হলেন বিচারপতি মো. আবু জাফর সিদ্দিকী ও বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts