হত্যাকাণ্ডে আইএস জড়িত নয়

ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে
Share Button

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রেজাউল করিম ও কাশিমপুর কারাগারের সাবেক কারারক্ষী রুস্তম আলী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘আইএস নয়, পুরোনো জঙ্গিরাই সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত।’

সোমবার (২৫ এপ্রিল) বিকেল ৩টার দিকে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

কামাল বলেন, ‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রেজাউল করিম ও কাশিমপুর কারাগারের সাবেক কারারক্ষী রুস্তম আলী হত্যাকাণ্ডে নিন্দা জানানো মতো ভাষা আমাদের জানা নেই। তবে আশা করছি, এ ঘটনারগুলোর রহস্য আমরা দ্রুতই উদঘাটন করতে পারবো।’

তিনি বলেন, ‘কারারক্ষী হত্যার তদন্ত চলছে। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক রেজাউল করিম ও কারারক্ষী হত্যার তদন্ত ও বিচারের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘প্রত্যেকটি হত্যাকাণ্ডকে আইএস নামে চালিয়ে দেয়া হচ্ছে। কিন্তু আমরা বারবারই প্রমাণ করছি এগুলো আইএস’র কাজ নয়। আইএসের নাম নিয়ে পুরোনো জঙ্গিরা এসব হত্যাকাণ্ড ঘটাচ্ছে।

কারারক্ষীকে তথাকথিত আইএস নাকি জঙ্গিরা হত্যা করেছে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তদন্তের পরই জানা যাবে- আসলে হত্যাকাণ্ডটি কীভাবে সংঘটিত হয়েছে।’

যেহেতু কারারক্ষীকে কারা ফটকের বাইরে হত্যা করা হয়েছে সেহেতু নিরাপত্তারক্ষীদের এ ব্যাপারে তেমন কিছু ভূমিকা রাখার সুযোগ নেই বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, সোমবার (২৫ এপ্রিল) বেলা সোয়া ১১টার দিকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারের সামনে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রাণ হারান অবসরকালীন ছুটিতে থাকা রুস্তম আলী নামে এক কারারক্ষী। তিনি সর্বশেষ কাশিমপুর কারাগারের মহিলা ইউনিটে সার্জেন্ট ইন্সট্রাক্টর হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এসময় তিন মোটরসাইকেল আরোহী কারাগারের সামনের একটি দোকানে অতর্কিত হামলা চালিয়ে রুস্তমকে গুলি করে পালিয়ে যায়। রুস্তম আলীর বাড়ি পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার চরকগাছিয়া গ্রামে। ২০১৫ সালের নভেম্বর মাসে থেকে তিনি অবসরকালীন ছুটিতে ছিলেন।

এর আগে গত শনিবার (২৩ এপ্রিল) সকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে বাসার সামনেই গলাকেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts