অলিম্পিক পদক মঞ্চে বিয়ের প্রস্তাব, কী বললেন প্রেমিকা?

marriage_proposal_at_the_olympics_medal_ceremony
Share Button

এভাবেই বুঝি প্রেমকে স্মরণীয় করতে হয়! যেটি করলেন কিন কাই ও হে জি।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসর অলিম্পিকের পুরস্কার বিতরণী মঞ্চ। হাজারো দর্শকের সামনে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব। নাটকীয় মুহূর্তগুলোর এক পর্যায়ে প্রেমিকাও বললেন, ‘কবুল’।

রিও অলিম্পিকে এমন ঘটনার জন্ম দেন চীনা অ্যাথলেট প্রেমিক কিন কাই এবং প্রেমিকা হে জি।

রোববার নারীদের তিন মিটার ডাইবিংয়ে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী হে জি আনুষ্ঠানিকভাবে তার রৌপ্য পদক গ্রহণ করেন।

এর পরপরই মঞ্চে আসেন তার প্রেমিক পুরুষদের সিনক্রোনাইজড স্প্রিংবোর্ডে ব্রোঞ্জ পদক জয়ী কিন কাই।

পদক মঞ্চে প্রস্তাব, মেয়েও বললেন ‘কবুল’প্রেমিকার পায়ের কাছে হাঁটু গেড়ে বসে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন তিনি।

বিশ্বের কোটি কোটি টিভি দর্শকের সামনে প্রেমিকের এমন কাণ্ডে লাজুক হে জি দু’হাত দিয়ে মুখ ঢেকে ফেলেন। এক পর্যায়ে তিনি বিয়ের প্রস্তাবে সম্মতি দিয়ে ‘হ্যাঁ’ বলে দেন।

তখন হেজির হাতে অ্যানগেজমেন্ট আন্টি পরিয়ে দেন কিন কাই। অলিম্পিক মঞ্চেই একে অপরকে জড়িয়ে ধরেন অ্যাথলেট প্রেমিক জুটি।

হে জি বলেন, ‘আমরা ছয় বছর ধরে প্রেম করে আসছি। তবে আজই (রোববার) যে তার কাছে থেকে বিয়ের প্রস্তাব পাব, তা ভাবিনি।’

তিনি বলেন, ‘কিন কাই আমাকে অনেক বিষয়েই বলেছে, অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তবে আমি মনে করি, আমার মন ছুঁয়েছে তার এই কথা- সে হচ্ছে এমন মানুষ, জীবনভর যার প্রতি আমি আস্থা রাখতে পারি।’

পদক মঞ্চে প্রস্তাব, মেয়েও বললেন ‘কবুল’এদিকে এই নাটকীয় বিয়ের প্রস্তাবের বিষয়ে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে গেছেন দর্শকরা। বিবিসির ফেসবুক পেইজে এক পক্ষ বলছে, কিন কাইয়ের বিয়ের প্রস্তাব হে জির পদক জয়ের মহিমাকে আড়াল করে ফেলেছে।

আরেক পক্ষ বলছে, বিয়ের প্রস্তাব তার পদকের সারিতে আরেকটি পদক যোগ করেছে।

টুইটারের মতো চীনা সামাজিক মাধ্যম উইবোতে এই বিয়ের প্রস্তাবকে সবচেয়ে বড় আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

ব্যবহারকারীদের কেউ কেউ এ প্রস্তাবকে ‘মিষ্টি ও রোমান্টিক’ আখ্যা দিয়েছেন। তবে বিয়ের মতো জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয়া ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণে বিশ্ববাসীর সামনে হে জিকে চাপের মুখে ফেলায় কাই কিনের সমালোচনাও করছেন অনেকে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts