জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে লজ্জা জনক স্কোর টাইগার বাহিনীর

আউট হয়ে গেলেন তামিম ইকবাল
Share Button

ত্রিদেশীয় সিরিজ এর পঞ্চম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শুরতেই ফিরে গিয়েছিলেন এনামুল হক। খারাপ কিছু ঘটতে যাচ্ছে তার আভাস পাওয়া গিয়েছিল তখনই। তবে পরে তামিম-সাকিব মিলে সেই শংকা উড়িয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু তারা ফিরতেই তাসের ঘরে মতো ভেঙে পড়ল বাংলাদেশ। এতে প্রথমে ধেয়ে আসা দুঃসংবাদেরই প্রতিফলন ঘটল। ত্রিদেশীয় সিরিজে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাত্র ২১৬ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়েছে মাশরাফি বাহিনী।

মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। ইনিংস সূচনা করেন তামিম ইকবাল ও এনামুল হক বিজয়। তবে প্রতাশ্যানুযায়ী সূচনা এনে দিতে পারেননি বিজয়। শুরুতেই কাইল জারভিসের এলবিডব্লিউর শিকার হয়ে ফেরেন তিনি।

এর পর সাকিব আল হাসানকে নিয়ে প্রাথমিক বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠেন তামিম। এক পর্যায়ে জমে ওঠে তাদের জুটি। দুর্দান্ত খেলছিলেন তারা। তবে ভালো খেলতে খেলতে হঠাৎই থেমে যান সাকিব। ক্যারিয়ারে ৩৭ হাফসেঞ্চুরি (৫১) তুলে সিকান্দার রাজার বলে টেলরের স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হয়ে ফেরেন তিনি।

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের পর ক্রিজে আসেন মুশফিকুর রহিম। তবে আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি তিনি। প্রিয় সুইপ শট খেলতে গিয়ে মুজারাবানির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মুশফিক (১৮)।

মিস্টার ডিপেন্ডেবলের বিদায়ের পর পথ হারিয়ে বসে বাংলাদেশ। মরুভূমির ঝড়ে বালির মতো সবাই উড়ে যায়। ১৫৬ থেকে ১৭০ যেতে ৫ উইকেট হারায় টাইগারররা। একে একে যাওয়া-আসার মিছিলে যোগ দেন মাহমুদউল্লাহ, তামিম ও সাব্বির, নাসির ও মাশরাফি।

শেষ দিকে সানজামুল-মোস্তাফিজের ক্যামিওতে মান বাঁচে বাংলাদেশের। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২১৬ রানের সংগ্রহ করে টাইগাররা। গুরুত্বপূর্ণ ১৯ রান করে সানজামুল ফিরলেও ১৮ রানে অপরাজিত থাকেন মোস্তাফিজ। অপর প্রান্তে ৮ রানে অপরাজিত থাকেন রুবেল।

এদিন অধিকাংশ ব্যাটসম্যানই আসি-যায় করলেও বরবারের স্বাচ্ছন্দ্যে ব্যাট করেছেন তামিম। তবে ফিরেছেন আবারও সেঞ্চুরি (৭৬) বঞ্চিত হয়ে। ১০৫ বলে ৬ চারে এ ইনিংস খেলার পথে দুটি মাইলফলক ছুঁয়েছেন তিনি। প্রথমে সনাৎ জয়াসুরিয়াকে টপকে একই ভেন্যুতে সবচেয়ে বেশি রান করার বিশ্বরেকর্ড গড়েন। এরপর প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেট ৬ হাজার রান করার কীর্তি গড়েন ড্যাশিং ওপেনার।

৪ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশকে গুঁড়িয়ে দিতে সামন থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমার। ৩ উইকেট নিয়ে তাতে সমর্থন যুগিয়েছেন কাইল জারভিস।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts