মাহামুদুল্লাহর কাছে হারলো মাশরাফি!

খুলনা টাইটানস এর জয়

বিপিএল-২০১৭ এর চট্টগ্রাম পর্বের প্রথম ম্যাচে রংপুর রাইর্ডাসকে ৯ রানের ব্যাবধানে হারিয়েছে খুলনা টাইটানস।

মাশরাফি বিন মুর্তজার রংপুর রাইডার্সকে শুক্রবার দুপুরের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ১৫৯ রানের টার্গেট দিয়েছিল মাহমুদউল্লাহর খুলনা টাইটানস। কিন্তু গেইল-ম্যাককলাম এর মত ব্যাটসম্যান থাকা সত্যেও সেই রান করতে পারেনি রংপুর রাইডার্স। খুলনার সংগ্রহ করা ১৫৮ রান তাড়া করতে নেমে ৬ উইকেটে ১৪৯ রানে থামে রংপুর রাইডার্স।

খেলতে নেমে শুরুটা ভাল হয়নি রংপুরের। ২০ রানের মধ্যে দলের প্রধান দুই ভরসা ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ও ক্রিস গেইলকে হারিয়ে বসে রংপুর রাইডার্স। আজ মাত্র দুই রান করেন ম্যাককালাম। আগের ম্যাচের হাফ সেঞ্চুরিয়ান গেইল বিদায় নেন ৯ বলে ১৬ রান করে।

দলীয় ২৯ রানে মোহাম্মদ মিঠুন আউট হলে একেবারে খাদের কিনারে নেমে যায় মাশরাফির দল। এরপর ফজলে মাহমুদ আরো বিপদে ঠেলে দেন দলকে। এখান থেকে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় দেশের উত্তরের দলটি। রবি বোপারা ও তরুণ ক্রিকেটার নাহিদুল হক মিলে যোগ করেন ১০০ রান।

৩৪ বলে ৫০ রান পূর্ণ করেন নাহিদুল। পরে হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন বোপারাও। তবে শেষ ওভারগুলোতে বোলারদের ওপর সেভাবে শাসন করতে পারেননি তাঁরা। ৪৩ বলে ৫৮ রান করেন নাহিদুল। ৪৩ বলে ৫৯ রান করে ইনিংসের শেষ বলে আউট হন রবি বোপারা। খুলনার আফিফ দেন দুটি উইকেট।

এর আগে জহুর আহমদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাটিং করে ৮ উইকেটে ১৫৮ রান তুলেছিল খুলনা টাইটানস।

মাশরাফির রংপুর রাইডার্সের কাছে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই রিলে রুশোকে হারায় খুলনা। ৪ বলে ১১ রান করেন রুশো। তৃতীয় ওভারে আফিফ হোসেন ধ্রুব ফিরলে চাপে পড়ে যায় দলটি। এরপর অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও বাহাতি ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত ইনিংসটা সামলানোর দায়িত্ব নেন। ২০ রানের বেশি করতে পারেননি শা্ন্ত। দলীয় ৫৯ রানে মাহমুদউল্লাহকে একা রেখে প্যাভিলিয়নে ফেরেন এই তরুণ ব্যাটসম্যান।

এরপর লড়াইটা একাই নিজের কাঁধে তুলে নেন মাহমুদউল্লাহ। নিকোলাস পুরানকে সঙ্গে নিয়ে রানের চাকাটা সচল রাখেন তিনি। ২০ বলে ১৬ রান করে পুরান ফিরলেও হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন মাহমুদউল্লাহ। দলীয় ১৩০ রানে তিনি যখন ফিরে যান তখন তার নামের পাশে জ্বলজ্বল করছে ৩৬ বলে ৫৯ রানের দারুণ একটি ইনিংস।

এরপর কার্লোস ব্রার্থওয়েট-আরিফুল হকরা স্কোর বাড়ানোর চেষ্টা করলেও ১৫৯ রানের বেশি করতে পারেনি খুলনা টাইটানস। বার্থওয়েট ১১ ও আরিফুল ১৬ রান করেন। রংপুরের রুবেল তিনটি ও মালিঙ্গা নেন দুটি উইকেট।

৮ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট পেয়েছে খুলনা। অন্যদিকে, ৬ পয়েন্ট পেয়েছে রংপুর । তারা অবশ্য খুলনার চেয়ে একটি ম্যাচ কম খেলেছে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts