সুজন স্যার বকলেও আদর করে বুঝিয়ে দেন : তাসকিন

তাসকিন আহম্মেদ

সাবেক কোচ হাথুরুসিংহের বিদায়ের পর জাতীয় ক্রিকেট দলের দায়িত্বে আছেন এখন খালেদ মাহমুদ সুজন। পদ টেকনিক্যাল ডিরেক্টর হলেও সুজনের ভূমিকা আসলে কোচের। জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়কের কোচিংয়ের ধরন নিয়ে খুশি পেসার তাসকিন আহমেদ।

শ্রীলঙ্কা আর ত্রিদেশীয় সিরিজ সামনে রেখে গত বুধবার শুরু হয়েছে জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্প। শনিবার মিরপুর ক্রিকেট একাডেমিতে ব্যাটসম্যানদের পাশাপাশি বোলারদের আলাদা ব্যাটিং ক্লাস করিয়েছেন সুজন।

অনুশীলন শেষে সুজনের কোচিং নিয়ে তরুণ পেসার তাসকিন বলেছেন, ‘একেক জনের কথা বলার ধরন একেক রকম। তিনি (হাথুরুসিংহে) হয়তো বকাঝকা করতেন। সুজন স্যার বকলেও আদর করে বুঝিয়ে দেন।’

এ বছর সময়টা ভালো কাটেনি তাসকিনের। স্বরূপে ফিরতে কঠিন পরিশ্রম করছেন তিনি। ‘সুজন স্যার’-এর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বললেন, ‘সুজন স্যারের সঙ্গে সব বোলারের কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে। তিনি আমাদের শক্তি আর দুর্বলতা সম্পর্কে জানেন।

আমার বোলিংয়ের অন্যতম অস্ত্র ইনকাটার। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে আউট সুইং নিয়ে কাজ করতে গিয়ে সেটা হারাতে বসেছিলাম। এখন সেটা নিয়ে কাজ করছি, সুজন স্যার সেখানেই ফোকাস করেছেন। আশা করি, ঠিক হয়ে যাবে।’

বোলারদের ব্যাটিং সেশন নিয়েও তাসকিনের কণ্ঠে উচ্ছ্বাস। তার দৃঢ় বিশ্বাস, বোলারদের ব্যাটিং অনুশীলন দলের অনেক উপকারে আসবে, ‘অনেক ক্লোজ ম্যাচে বোলারদেরও ব্যাট হাতে ভূমিকা রাখতে হয়। কয়েকটি দেশের লোয়ার অর্ডার ব্যাটিং খুবই ভালো। আমাদেরও এই জায়গায় আগের চেয়ে উন্নতি হয়েছে। লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে ১৫-২০টা রান এলেও জয়ের সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়।’

নতুন বছরে বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হাথুরুসিংহের শ্রীলঙ্কাকে মোকাবেলা করা। এ বিষয়ে তাসকিনের বক্তব্য, ‘হাথুরুসিংহে আমাদের শক্তি-দুর্বলতা সবই জানেন। এটা শ্রীলঙ্কাকে বাড়তি সুবিধা দিতে পারে। তবে আমার বিশ্বাস, দেশের মাটিতে আমরা সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে ওরা কোনও সুযোগই পাবে না।’

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts