আইপিএল খেলবেন মোস্তাফিজ, কী বললেন তিনি?

মুস্তাফিজের দুর্দান্ত বোলিং, গুজরাটের সংগ্রহ ১২৬ রান
Share Button

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে ৭ এপ্রিল কলম্বো থেকেই সরাসরি কেকেআরের সঙ্গে যোগ দেবেন সাকিব আল হাসান। কলম্বো থেকে এ খবর আগেই পাঠকদের দিয়ে রেখেছে। সাকিব আইপিএল খেলতে যাবেন, এটা অনেকটাই জানা কথা। তবে, সবার আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু মোস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে। এই কাটার মাস্টারই তো আইপিএলের গত আসরে সানরাইজার্স হায়দারাবাদ এর শিরোপা জয়ে অসাধারণ ভূমিকা রেখেছিলেন। প্রশ্ন হলো, ইনজুরি প্রবণতা এবং সামনে জাতীয় দলের ব্যস্ত সূচি। সব মিলিয়ে এবার মোস্তাফিজ আইপিএল খেলতে যেতে পারবেন তো!

শ্রীলঙ্কায় সফর চলাকালে এ নিয়ে মোস্তাফিজের মতামত জানার জন্য উন্মুখ বাংলাদেশের মিডিয়া। বাংলাদেশ থেকে যে সব মিডিয়াকর্মী শ্রীলঙ্কা সফর কাভার করতে গিয়েছেন, তাদের সবারই চেষ্টা মোস্তাফিজের কাছ থেকে এ বিষয়ে কিছু জানা যায় কি না; কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্টের কঠোর নিষেধাজ্ঞা। দলীয় ম্যানেজারের অনুমতি ছাড়া একটি পাতাও যেন নড়তে পারবে না। কেউ অনুমতিছাড়া সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে পারবে না। একেবারেই ‘না’।

এই যখন পরিস্থিতি, তখন হঠাৎ করেই স্পোর্টস স্টার নামে ভারতীয় একটি ওয়েবসাইট প্রকাশ করলো, আইপিএলে সম্ভবত খেলতে যেতে পারছেন না মোস্তাফিজ। সেই রিপোর্টে কিন্তু মোস্তাফিজের বক্তব্যও জুড়ে দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর কলম্বোয় অবস্থানরত বাংলাদেশি মিডিয়া পুরোপুরি অবাক। যেখানে ম্যানেজমেন্টের অনুমতি ছাড়া একটি পাতাও নড়ার সুযোগ নেই, সেখানে কিভাবে বাংলাদেশের মিডিয়াকে পাশ কাটিয়ে ভারতীয় মিডিয়ার সঙ্গে কথা বললেন মোস্তাফিজ? বিষয়টি স্পষ্ট হওয়ার জন্য ওই সময় অবশ্য মোস্তাফিজ কিংবা টিম ম্যানেজমেন্টের কাউকে পাওয়া গেলো না। কারণ, এমনিতেই বৃহস্পতিবার ছিল ক্রিকেটারদের ঐচ্ছিক অনুশীলন। মোস্তাফিজ, মুশফিক আর সৌম্য সেই ঐচ্ছিক অনুশীলন করতে এলেও তারা চলে গেছেন ততক্ষণে। কোচ-ম্যানেজার থেকে শুরু করে টিম ম্যানেজমেন্টের যারা মাঠে এলেন তারাও ফিরে গেছেন টিম হোটেলে।

রাতে দলীয় ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনকে ফোনে ধরা গেলো। তার কাছে জাগো নিউজের পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া হলো, মোস্তাফিজ কী আইপিএল খেলতে যাচ্ছেন? জবাবে তিনি জানালেন, ‘আমি এখনও নিশ্চিত কিছু জানি না। বোর্ডের পক্ষ থেকে হ্যাঁ কিংবা না, কোনটাই জানি না। যেটুকু জানি, মোস্তাফিজ আইপিএল খেলতে যেতে প্রস্তুত। যাওয়ার জন্য কাগজ-পত্র যা প্রয়োজন, সেগুলোও প্রস্তুত করছে। তবে, এটুকু বলতে পারি, দীর্ঘ ইনজুরি থেকে ফিরে আসার পর এখন যে অবস্থা এবং সামনে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিসহ বাংলাদেশের ব্যস্ত সূচি রয়েছে। সুতরাং, আমার মনে হয় না, মোস্তাফিজকে এ মুহূর্তে আইপিএল খেলার জন্য বিসিবি অনুমতি দেবে।’

দেশের মিডিয়াকে এড়িয়ে ভারতীয় মিডিয়ার সঙ্গে কিভাবে কথা বললেন মোস্তাফিজ? এ প্রশ্নের জবাবে দলীয় ম্যানেজার বলেন, ‘এটাও আমার জানা নেই। খেলোয়াড়দের তো কারও সঙ্গে কথা বলতে হলে আমার অনুমতি নেয়া প্রয়োজন। মোস্তাফিজের সঙ্গে কথা বলার জন্য কেউ আমার কাছে আসেনি কিংবা মোস্তাফিজও অনুমতি চায়নি। কিভাবে ভারতীয় মিডিয়া কথা বললো, সেটা আমি খোঁজ করে দেখবো। হয়তো, ফোনে-টোনে কথা বলে থাকতে পারে।’

তবে, জাগো নিউজের পাঠকদের জন্য খবর হলো, দুপুরে যখন ঐচ্ছিক অনুশীলন করার জন্য মোস্তাফিজ-মুশফিকরা মাঠে এসেছিলেন, তখন অনুশীলন শেষ করে বেরিয়ে যাওয়ার মুহূর্তে হাঁটতে হাঁটতেই জাগো নিউজের পক্ষ থেকে মোস্তাফিজের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, ‘সাকিব তো কলম্বো থেকেই আইপিএল খেলতে চলে যাবে। আপনার কী খবর। আপনি কী এখান থেকে যাবে নাকি ঢাকা থেকে যাবেন।’

স্বল্পভাষী মোস্তাফিজ খুব সংক্ষিপ্ত জবাবে বললেন, ‘এখনও কিছু বলতে পারছি না। এখান থেকে যাবো নাকি ঢাকা থেকে যাবো। আসলে যাবো কী যাবো না এ বিষয়ে এখনও কিছু জানি না।’ মোস্তাফিজের সংক্ষিপ্ত জবাবে তিনি আসলে আইপিএল খেলতে যাবেন না, এমন কিছুই বলেননি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts