আইপিএল বন্ধ হয়ে যাবে!

Share Button

ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর আইপিএল। বিশ্বের নামি-দামি ক্রিকেটারদের নিয়ে প্রতি বছর এ আসর অনুষ্ঠিত হয়। আইপিএলকে ঘীরে চলে কোটি কোটি টাকার বাণিজ্য।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড এরই মধ্যে ৯টি আসর সফলভাবে সম্পন্ন করেছে। তবে আগামী এপ্রিল মাস থেকে শুরু হতে যাওয়া আইপিএলের দশম আসর নিয়ে শংকা তৈরি হয়েছে।

ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরমেটের এ আসরটি বন্ধ হয়ে যেতে পারে এমন খবর প্রকাশ করেছে ভারতীয় মিডিয়া। ভারতের বাংলা পত্রিকা এবেলার খবরে বলা হয়েছে, টাকা পয়সা নিয়ে ঝামেলার কারণে বন্ধ হতে পারে জনপ্রিয় এই টুর্নামেন্ট।

খবরে বলা হয়, আইপিএলের ম্যাচগুলো বিভিন্ন রাজ্যে অনুষ্ঠিত হয়। তবে লোধা কমিটির প্রস্তাবিত সংস্কারের পরে রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলো এখনও টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য কোনো টাকা বোর্ডের কাছ থেকে পায়নি।

খবরে আরও বলা হয়েছে, আইপিএলের প্রতিটি ম্যাচ আয়োজনের জন্য বোর্ড থেকে ৬০ লাখ টাকা রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলোকে দেয়া হয়। এর মধ্যে ৩০ লাখ টাকা দেয়া হয় ফ্র্যাঞ্চাইজি থেকে আর বাকি টাকা দেয়া হয় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড থেকে। মূল টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই মোট অর্থের কিছু পরিমাণ অগ্রিম হিসেবে দেয়া হয়। কিন্তু এখন পরিস্থিতি বদলেছে। সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশ রয়েছে— রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলো লোধা কমিটির সুপারিশ না মানলে তাদের যেন কোনো অর্থ বরাদ্দ না দেয়া হয়।

এই নিয়মের কারণেই হুমকির মুখে পড়েছে আইপিএল আয়োজন।

এদিকে লোধা কমিটির বিরুদ্ধে সুপ্রিমকোর্টে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সিএবি। লোধা কমিটির বিরুদ্ধে যুদ্ধাংদেহী মূর্তি নেয়ার জন্যই আইপিএলের আগে নাইট রাইডার্সের ঘরোয়া ম্যাচ আয়োজনের জন্য বরাদ্দ অগ্রিম অর্থ পাবে না সিএবি।

এ বিষয়ে সিএবি’র এক কর্তা জানান, টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য যে অগ্রিম অর্থের প্রয়োজন তা এখনও আমরা হাতে পাইনি। তাতেই তৈরি হয়েছে সমস্যা।

কয়েকদিন আগে মুম্বাইয়ে আইপিএল কমিটির এক বৈঠকে প্রয়োজনীয় অর্থ না পেলে আইপিএলের ম্যাচ আয়োজন করতে পারবে না বলে জানিয়েছিল রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলো।

উল্লেখ্য, এর আগে নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড সিরিজের সময় একই কারণ দেখিয়ে ম্যাচ আয়োজনে আপত্তি দেখিয়েছিল রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলি। তবে সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশে তাৎক্ষণিকভাবে শুধু ম্যাচ আয়োজনের জন্য অর্থ বরাদ্দ করা হয়।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts