কোহলির কথা শোনেন না ধোনি! সবার সামনেই তা ফাঁস করলেন ভারত অধিনায়ক

বিরাট কোহলির কথা নাকি শোনেন না মহেন্দ্র সিংহ ধোনি
বিরাট কোহলির কথা নাকি শোনেন না মহেন্দ্র সিংহ ধোনি! যে সে নন, স্বয়ং কোহলিই খবরের ভিতরকার এই খবর জানিয়েছেন সর্বসমক্ষে।

টেস্ট, ওয়ানডে সিরিজ আগেই জিতে নিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। বাকি ছিল কেবল টি টোয়েন্টি। তা-ও বৃহস্পতিবার জিতে নেয় ভারত। ক্রিকেটভক্তদের আনন্দের আর অন্ত নেই। এরকম পরিস্থিতিতে সাজঘরের ভিতরের কথা ফাঁস করে দিলেন স্বয়ং ভারত অধিনায়কই।

বেঙ্গালুরুতে প্রথমে ব্যাট করে ইংল্যান্ডের উপরে ২০২ রানের পাহাড় চাপায় ভারত। সুরেশ রায়না, মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ও যুবরাজ সিংহের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের জবাব খুঁজে পায়নি ইংল্যান্ড। ব্যাট করতে নেমে ১২৭ রানে থেমে যায় ইংরেজরা। দলের কঠিন সময়ে চার নম্বরে ব্যাট করতে নেমে টি টোয়েন্টি ক্রিকেটে নিজের প্রথম অর্ধশতরানটি করেন ধোনি। যুবিও ১০ বলে ২৭ রান করেন। সুরেশ রায়না ঝকঝকে ৬৩ রানের ইনিংস খেলেন।

খেলার শেষে কোহলি প্রশংসায় ভাসিয়ে দিয়েছেন প্রাক্তন অধিনায়ককে। সম্প্রচারক চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কোহলিকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘আমি তো বরাবর ধোনিকে আগে ব্যাট করার কথাই বলি। কিন্তু ধোনিই আমাকে ‘পরে নামব’ বলে থামিয়ে দেয়। ধোনি আসলে এক জন চ্যাম্পিয়ন ক্রিকেটার। সত্যিকারের

ম্যাচ উইনার। বড় ম্যাচ থাকলে, বিশেষ করে সিরিজ নির্ণায়ক ম্যাচে ও নিজেই উপরে চলে আসে ব্যাট করতে।’অর্থাৎ আগের দু’টো টি টোয়েন্টি ম্যাচে ধোনিকে ব্যাটিং অর্ডারে উঠিয়ে আনার কথা ভেবেছিলেন কোহলি। কিন্তু মাহি নিজেই বেঁকে বসেন। বেঙ্গালুরুতে ছিল ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচ। খেলার গুরুত্ব বুঝে ধোনি নিজেই ব্যাট হাতে নেমে পড়েন চার নম্বরে।

ধোনি উপরের দিকে চলে আসায় লাভবানই হয় ভারত। প্রথমে রায়নার সঙ্গে পার্টনারশিপ গড়েন। পরের দিকে স্ট্রাইক রোটেট করেছেন যুবির সঙ্গে। ফিল্ডিং করার সময়ে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়েছেন কোহলিকে। ভারত অধিনায়ক ভূয়সী প্রশংসা করে বলেছেন, ‘ধোনি উইকেটের পিছনে দাঁড়ালে আমাদের কাজটা সহজ হয়ে যায়। নেতার ভূমিকায় টি-২০ ফরম্যাটে আমি একেবারেই নতুন। সে ক্ষেত্রে আমি প্রতিটা মুহূর্তে ধোনির কাছ থেকে সাহায্য পেয়েছি।’

ধোনি যে পুরোদস্তুর টিম ম্যান, সেই কথা অস্বীকার করেননি কোহলি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts