চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কার সামনে আত্মবিশ্বাসী আফগানিস্তান

চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কার সামনে আত্মবিশ্বাসী আফগানিস্তান

কুমারা সাঙ্গাকারা ও মাহেলা জয়াবর্ধনের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটাররা অবসর নেয়ার পর থেকেই আগের সেই ধার নেই শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংয়ে। নবীন ব্যাটসম্যানরা প্রত্যাশা পূরণে বারবার ব্যর্থ হচ্ছেন। তার ওপর যোগ হয়েছে ইনজুরি সমস্যা। আর অধিনায়ক ও কোচ পরিবর্তনে অনেকটাই অগোছালো লঙ্কানরা।

অপরদিকে বাছাইপর্বে দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলে জিম্বাবুয়েকে পেছনে ফেলে মূলপর্বে জায়গা করে নিয়েছে আফগানিস্তান। এই আত্মবিশ্বাসী আফগানদের বিপক্ষে বৃহস্পতিবার কলকাতার ইডেন গার্ডেনে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় নিজেদের ফিরে পাওয়ার লড়াইয়ে মাঠে নামবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। এ ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে মাছরাঙ্গা টেলিভিশন, গাজী টিভি ও স্টার স্পোর্টস ১ ও ৩।

টি২০ বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আফগানদের লড়াই অনেকটা এক পেশে হওয়ার কথা। কিন্তু সম্প্রতি লঙ্কানদের আগের সেই চেহারা আর নেই। গত বিশ্বকাপের পর থেকেই নিজেদের সেরা ক্রিকেটটা খেলতে পারছে না তারা। র‌্যাংকিংয়ে নামতে-নামতে এখন লঙ্কানরা অবস্থান করছে আট নাম্বারে। তাদের পরেই অবস্থান আফগানদের। বাছাইপর্ব থেকে উঠে আসা আফগানিস্তানের বিপক্ষে বৃহস্পতিবার তাই চ্যালেঞ্জের মুখেই পড়তে হবে ম্যাথুসের দলকে।

ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে এখন পর্যন্ত মুখোমুখি হওয়ার সুযোগ হয়নি এই দুটি দলের। যদিও এর আগে ওয়ানডে সংস্করণে দু’বার মুখোমুখি হয়েছিল দল দুটি। দু’বারই সহজ জয় পেয়েছে লঙ্কানরা। ২০১৪ সালে মিরপুরের মাঠে সাঙ্গাকারার অনবদ্য ব্যাটিংয়ে ১২৯ রানে হারে আফগানিস্তান। তবে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত ওয়ানডে বিশ্বকাপে দারুণ লড়াই করে হেরেছিল তারা। মাহেলা জয়াবর্ধনের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে চার উইকেটে হার মানে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি। আফগানদের জন্য এবার স্বস্তির বিষয় হলো, আগের দুই ম্যাচের ‘ভিলেন’ জয়াবর্ধনে-সাঙ্গাকারা এ ম্যাচে থাকছেন না।

এদিকে টি২০ বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে জিম্বাবুয়েকে ৫৯ রানে পরাজিত করে সুপার টেনের টিকিট নিশ্চিত করে আফগানিস্তান। টেস্ট খেলুড়ে দেশের বাইরে একমাত্র দেশ হিসেবে এবারের বিশ্বকাপে প্রতিনিধিত্ব করছে তারা। মূলত উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ও ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদের দুর্দান্ত ফর্মে মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে আইসিসির সহযোগী এ দেশটি।

২০১৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ১৯টি টি২০ ম্যাচ খেলেছে আফগানরা। জয়ের রেকর্ডটাও ঈর্ষণীয়। এর মধ্যে ১৬ টিতেই জয় পেয়েছে তারা। তবে এবারই প্রথম কোনো বড় দলের বিপক্ষে মাঠে নামছে আফগানরা।

অপরদিকে ২০১৪ সালের টি২০ বিশ্বকাপ জয়ের পর এখন পর্যন্ত ১৪টি ম্যাচে মাত্র চারটিতে জয় পেয়েছে লঙ্কানরা। তাই বৃহস্পতিবার কলকাতার ইডেন গার্ডেনে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচ হবে বলে মনে করছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment