টাইগারদের ১ পয়েন্ট কেড়ে নিল বৃষ্টি!

টাইগারদের ১ পয়েন্ট কেড়ে নিল বৃষ্টি!

বৃষ্টি থামতেই ঝড় তুললেন তামিম ইকবাল। ঝড়ো হাওয়াটা আরেকটু বাড়িয়ে দেন সৌম্য সরকার। ঝড় তুলে তামিম ফিরলে ফের বৃষ্টির দাপট। আয়ারল্যান্ডের হয়ে এক পয়েন্ট কেড়ে নিল সেই বৃষ্টিই।

শুক্রবার ধর্মশালায় বৃষ্টি আর তামিমদের লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত জয় হয়েছে বৃষ্টিরই। এক পয়েন্ট নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে টাইগারদের।

অবশ্য বৃষ্টির কল্যাণে এক পয়েন্ট পেয়ে কপাল পুড়েছে আইরিশদেরও। ‘এ’ গ্রুপে নেদারল্যান্ডসের পথ ধরে তাদেরও বিশ্বকাপ শেষ।

এখন দুই ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষে আছে টাইগাররা। অবশ্য সমান সংখ্যক ম্যাচে ওমানের ৩ পয়েন্ট থাকলেও রানরেটে তারা পিছিয়ে।

এখন সুপার টেনে খেলতে হলে এ দুদলের মুখোমুখি ম্যাচে জিততে হবে। আর সেই ম্যাচও বৃষ্টিতে ভেসে গেলে রানরেটে সুপার টেন নিশ্চিত হয়ে যাবে বাংলাদেশের।

এর আগে দিনভর বৃষ্টিতে ধর্মশালায় ওমান ও নেদারল্যান্ডসের খেলাও ভেসে যায়। বিলম্বে শুরু হয় বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচও। খেলা কমিয়ে আনা হয় ইনিংস প্রতি ১২ ওভারে।

টসে জিতে আইরিশ ক্যাপ্টেন উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান। বৃষ্টির কারণে আগে ব্যাটিং করা নিয়ে ছিল দুশ্চিন্তা।

শুরুতে এর কিছুটা আঁচও পাওয়া যায়। প্রথম ওভারেই জীবন পান সৌম্য। তুলে মারলেও সহজ ক্যাচটি ধরতে পারেনি আইরিশরা। এ ওভারে আসে মাত্র ৪ রান।

তবে এর পরেই রুদ্র মূর্তি ধারণ করেন তামিম। একাধারে দুই ওভার পিটিয়ে ঝড় তোলেন তিনি। তৃতীয় ওভারে জ্বলে ওঠে সৌম্যর ব্যাটও। সৌম্য যখন ১৩ বলে ২০ রান করে সাজঘরে ফেরেন, তখন ৪.৪ ওভারে টাইগারদের সংগ্রহ ৬১ রান।

এর পর সাব্বির রহমানকে সঙ্গে নিয়ে ঝড়ো ব্যাটিং অব্যাহত রাখেন তামিম। অষ্টম ওভারের শেষ বলে তামিম যখন ফিরেন, তখন বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৯৪ রান। ওভার প্রতি প্রায় ১২ রান।

জর্জ ডকরেলের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে থামার আগে তামিমের ২৬ বলে ৪৭ রানের ঝড়ো ইনিংসটিতে ছিল ৪টি ছক্কা এবং ৩টি চারের মার।

তামিম ফিরতেই ম্যাচে হানা দেয় বৃষ্টি। ক্রিজসহ খেলার প্রয়োজনীয় অংশ চলে যায় আবার ত্রিপলের নীচে। মুষলধারে বৃষ্টি ঝরতে থাকলে ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই সন্তুষ্ট থাকতে হয় টাইগারদের।

ওমানের বিপক্ষে টাইগারদের পরবর্তী ম্যাচ ১৩ মার্চ এই ধর্মশালায়। ওইদিনও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়ে রেখেছে আবহাওয়া অফিস।

এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে ফাইনালের আগের দিন হংকংয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের জন্য প্রস্তুতি ম্যাচ রেখেছিল আইসিসি।

এমন বিতর্কিত কাণ্ডের পর ‘বর্ষাকালে’ ধর্মশালায় ম্যাচ আয়োজন নিয়ে এখন প্রশ্ন তুলতেই পারে টাইগার সমর্থকরা।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment