টানা ব্যর্থতার পরও দলে সৌম্য কেন?

সৌম্য সরকার

প্রায় বছর খানেক টানা ব্যর্থতার পরও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চূড়ান্ত দলে রাখা হয়েছে ওপেনার সৌম্য সরকারকে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি একদিনের ম্যাচের সিরিজ শুরু ৭ অক্টোবর। প্রথম দুই ম্যাচের জন্য রোববার সন্ধ্যায় ১৪ সদস্যের দল ঘোষণা করলেন বিসিবির তিন সদস্যের নির্বাচক প্যানেল। আল আমিন ফিরবেন, অনুমেয়ই ছিল। তিনি ফিরেছেনও। কিন্তু সৌম্যের দলে থেকে যাওয়ায় অনেকটা বিস্ময় হয়েছেন ক্রিকেট পণ্ডিতরা।

সৌম্যকে অনেক বেশি সুযোগ দেওয়া হচ্ছে বলে মনে করছেন ক্রিকেট পণ্ডিতরা। সাবেক বাংলাদেশ অধিনায়ক শফিকুল হক হীরা্ বলেন,‘ আমার তো মনে হয় সৌম্যের জায়গায় ইমরুলকে দিয়ে ওপেন করানো উচিৎ। ইমরুল তো রানের মধ্যে আছে। সৌম্যকে কেন বিশ্রাম দেওয়া হচ্ছে না আমার মাথায় আসছে না। ওর ব্যাটিং ত্রুটি নিয়ে নিবিড়ভাবে কাজ করা উচিৎ। ওর সমস্যা আছে। কেন সেটা ম্যানেমেন্ট বুঝতে পারছে না?’

জাতীয় দলের হয়ে শেষ পাঁচটি টি-২০ ম্যাচে তার ইংনিংস যথাক্রমে ১১,০,১,২১ ও ৬। আর সদ্য শেষ হওয়া আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ওয়ানডেতে তার ব্যাট থেকে এসেছে- ০, ২০, ১১।

ব্যাট হাতে একবারেই ফ্লপ ছিলেন ক’মাস আগে অনুষ্ঠিত ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগেও। তার আগে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে ভারত,দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ে সফরে ছিলেন পুরোপুরি ব্যর্থ।

টানা ব্যর্থতার কারণে মনে করা হয়েছিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাদ পড়বেন এ ওপেনার।কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই গুঞ্জণ মিথ্যা হয়ে গেল।
গত বছর দেশের মাটিতে পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চমক দেখান সৌম্য। কিন্তু এরপর থেকেই রান খরা যাচ্ছে তার।
কিছু দিন জাতীয় দলের বাইরে রেখে তার ব্যাটিং টেকনিক নিয়ে কাজ করলে সৌম্যের জন্য সেটা বেশি ভালো হতো বলে মনে করেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।
কিন্তু নির্বাচকরা সৌম্যকে আরো একটা সুযোগ দিতে চাইছেন।শুধু নির্বাচকরা নন, টিম ম্যানেজমেন্টের চাওয়াও এটা।এমনকি বিসিবি চায়, সৌম্য আরেকটা সুযোগ পাক।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts