তাসকিনের বোলিং অ্যাকশন শোধরাতে দুই সপ্তাহ লাগবে

তাসকিনের বোলিং অ্যাকশন শোধরাতে দুই সপ্তাহ লাগবে

অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের দায়ে আইসিসির সাময়িক নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়া তাসকিন আহমেদের পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সোমবার থেকে জাতীয় দলের বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিকের অধীনে শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের ইনডোরে বোলিং অনুশীলন শুরু করেন এই পেসার। আর তাসকিনের বোলিং অ্যাকশন শুধরাতে দুই সপ্তাহ সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।

তিনি বলেন, নিয়ম অনুযায়ী কোন বোলারের ডেলিভারিতে কনুই ১৫ ডিগ্রির বেশি বাঁকা হলে সে নিষিদ্ধ হবে। এ ক্ষেত্রে সাঈদ আজমল ও প্রোসপার উতসেয়ার অ্যাকশন তা ছাড়িয়ে গেছে। ফলে তাদের বোলিং অ্যাকশন পরিবর্তন করতে হবে, আর তাই তাদের ফিরতে বেশ দীর্ঘ সময় লাগবে।

কিন্তু তাসকিনের নির্দিষ্ট কিছু ডেলিভারিতে কনুই ১৭ থেকে ১৮ ডিগ্রি সোজা থাকে। ফলে তাকে বোলিং অ্যাকশন পরিবর্তন করতে হবে না। শুধু বোলিং অ্যাকশন একটু শুধরাতে হবে। আর এ জন্য সর্বোচ্চ দুই সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। সুতরাং খুব শীঘ্রই আমরা তাকে সেই পুরনো রুপে খেলায় ফিরে পাবো বলে আশা করছি।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

Related posts

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

তাসকিনের বোলিং অ্যাকশন শোধরানোর কাজ শুরু

অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের দায়ে আইসিসির সাময়িক নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েছেন বাংলাদেশ দলের এই অন্যতম পেস বোলার তাসকিন আহমেদ। তবে নিষেধাজ্ঞার পর বসে নেই তাসকিন। বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিক দেশে ফেরার পরই শুরু হয়ে গেছে তাসকিনের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে পুনর্বাসনের কাজ।

সোমবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমী মাঠে শুরু হয়েছে তাসকিন আহমেদের পুনর্বাসন। এদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত হিথ স্ট্রিককে সঙ্গে নিয়ে বোলিং অ্যাকশনের কাজ করেন তরুণ এই ফাস্ট বোলার।

উল্লেখ্য, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশের পেসার তাসকিন আহমেদ এবং স্পিনার আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন দুই অনফিল্ড আম্পায়ার এস রবি এবং রড টাকার। এর পরদিন আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে অভিযোগ তোলে আইসিসিও।

এরপর গত ১২ মার্চ সানি ও ১৫ মার্চ তাসকিন চেন্নাই বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োমেকানিক্যাল সেন্টারে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিয়ে আসেন। সানির পরীক্ষার ফলাফল এক সপ্তাহ পর দিলেও তাসকিনের ফলাফল পাওয়া যায় চার দিনের মাথায়। এতে নিষিদ্ধ হন দু’জনই।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

Related posts

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.