বোলিংও করতে চান মুশফিক!

মুশফিকুর রহিম
Share Button

টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম জানালেন শ্রীলংকা সফরে সিরিজ জেতার ভালো সম্ভাবনা রয়েছে বাংলাদেশের। সম্ভাবনা কাজে লাগাতে চান। তার কিপিং নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে। মুশফিক জানালেন, পারলে বোলিংও করতেন। আজ শ্রীলংকা উড়াল দিচ্ছে বাংলাদেশ দল। কাল মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সংবাদ সম্মেলনের চুম্বক অংশ-

প্রশ্ন : শ্রীলংকার বিপক্ষে সিরিজ জেতার এটাই কি সেরা সুযোগ?

মুশফিক : বলতে পারেন। প্রতিটি সিরিজেই সুযোগ থাকে ভালো কিছু করার। অনেকদিন ধরে ভালো খেলেছেন এমন কয়েকজন ক্রিকেটার তাদের দলে নেই। নিয়মিত অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসও নেই। তবে খেলাটা হবে তাদের দেশে। তারা জানে যে, বাংলাদেশ অনেক দিন ধরে ভালো ক্রিকেট খেলছে। তাই অবশ্যই আমাদের সুযোগ আছে। সব কিছু নির্ভর করছে আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলার ওপর।

প্রশ্ন : গল টেস্টের স্মৃতি…!

মুশফিক : গলে স্পিনিং ট্র্যাক হয়। সর্বশেষ আমরা যখন সেখানে খেলেছি, তখন হয়তো ব্যাটিং উইকেট ছিল। আমাদের অনেক কষ্ট করে খেলতে হয়েছে। তারাও স্কোর বোর্ডে বড় রান তুলেছিল। উইকেট যাই হোক, আমরা চেষ্টা করব ফল আমাদের পক্ষে আনার।

প্রশ্ন : এবার সেরা প্রস্তুতি নিয়েই শ্রীলংকায় যাচ্ছেন?

মুশফিক : আমরা ক্রিকেটের লেভেলটা একটু উপরে আনতে পেরেছি। ফলে প্রত্যাশা ধীরে ধীরে বাড়ছে। টেস্ট বা ওয়ানডে, টি ২০ যাই হোক না কেন, সবাই মনে করেন, বাংলাদেশ যে কোনো দলের বিপক্ষে ভালো খেলে জিততে পারে। এটা আমাদের জন্য ভালো ব্যাপার। সাকিব, মোস্তাফিজ, মিরাজ এ তিনজন স্কিলফুল বোলার যখন একটা দলের হয়ে বোলিং করবে, তখন প্রতিপক্ষের জন্য সেটা চাপের ব্যাপারই হবে। আর তিনটা সিরিজ খেলে সেখানে যাচ্ছি। এটা আমাদের এগিয়ে রাখবে।

প্রশ্ন : রঙ্গনা হেরাথকে নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা করেছেন কী? এত বেশি খেলার ফলে সাকিব-তামিমরা ক্লান্ত হয়ে পড়বেন না তো?

মুশফিক : হেরাথ অনেক দিন ধরে শ্রীলংকার হয়ে খেলছে, সে বিশ্বের সেরা বোলারদের একজন। তাকে নিয়েও আমাদের পরিকল্পনা আছে। যা আমরা মাঠে প্রয়োগ করার চেষ্টা করব। তার বিপক্ষে কিভাবে খেলতে হবে সেটা আমাদের জানা আছে।

প্রশ্ন : বোলিং আক্রমণ নিয়ে কী বলবেন?

মুশফিক : ব্যাটিং ইউনিটে আমরা যতটা উন্নতি করেছি, ততটা বোলিংয়ে হয়নি। তারা এখনও অনভিজ্ঞ। তারা যত খেলবে, ততই পরিণত হবে। তাদের প্রত্যাশিত সফলতা না পাওয়ার পেছনে আমাদের ফিল্ডারদেরও দায় আছে।

প্রশ্ন : শ্রীলংকায় শততম টেস্ট ম্যাচ খেলবেন?

মুশফিক : এটা অবশ্যই রোমাঞ্চিত হওয়ার ব্যাপার। একটা মাইলফলক। শততম টেস্ট শুধু আমার জন্য নয়, পুরো বাংলাদেশের জন্য একটা বড় মাইলফলক, আমাদের জাতির জন্য একটা বড় উপলক্ষ। সেটা স্মরণীয় করে রাখার চেষ্টা করব আমরা।

প্রশ্ন : শ্রীলংকার উইকেট?

মুশফিক : উইকেট অবশ্যই প্রভাব ফেলে। ভালো উইকেটে রান করলে ব্যাটসম্যানদের কৃতিত্ব কম হয়। বলা হয়, উইকেট ভালো তাই রান পেয়েছে। ভারতে উইকেট ফ্ল্যাট ছিল। আমরা যে কোনো উইকেটে খেলতে প্রস্তুত। উইকেট থেকে আমরা যেমন সুবিধা পাব, ওরাও পাবে।

প্রশ্ন : কিপিং নিয়ে আপনার চিন্তা কি?

মুশফিক : কিপিংয়ে ঠিকঠাক কাজ করার কথাটা তো মাথায় আছেই। সবসময়ই তা থাকে। ১০০ করলেও মাথায় থাকে ২০০ করতে হবে। এমন কোনো কিপার নেই যার ভুল হয় না। আমার দেখা সেরা কিপার হল সাহা (ঋদ্ধিমান)। ওকে ফলো করার চেষ্টা করি। তার সবকিছুই পরিষ্কার। সেও কিন্তু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ক্যাচ মিস করেছে। ক্রিকেট আমাদের রুটিরুজির মাধ্যম। এখানে বেইমানি করার কোনো সুযোগ নেই।

আর আমার তো সবই করতে ইচ্ছে করে। আমার তো বোলিংও করতে ইচ্ছে করে। এতে যদি দলের উপকার হয়! কিন্তু আমি ইচ্ছে করলেই তো হবে না। আমার যে দায়িত্ব আছে, তা পালন করাই আসল। কোচ আছেন, ম্যানেজমেন্ট এবং বোর্ড আছে, তারা যে সিদ্ধান্ত নেবেন আমি মেনে নেব।

প্রশ্ন : শ্রীলংকায় জয়ের আশা কতটুকু করছেন?

মুশফিক : টেস্টে এখনও আমরা কোনো দলকে বলে-কয়ে হারিয়ে দেয়ার মতো জায়গায় নেই। নিউজিল্যান্ডে আমরা একটা টেস্ট ম্যাচে ভালো খেলেছি। এরপর বিশ্বের একনম্বর দল ভারতের বিপক্ষে চারদিন পর্যন্ত খুব ভালো ক্রিকেট খেলেছি। আমাদের সামর্থ্য আছে। তবে মাঠে তা প্রয়োগ করতে হবে।

প্রশ্ন : উপরে ব্যাটিং করা প্রসঙ্গে…।

মুশফিক : দলের কম্বিনেশন এখন খুব ভালো। আমি উপরে ব্যাটিং করব কিনা, সেটা ম্যানেজমেন্টের ব্যাপার। টপঅর্ডারে যারা আছে, তারা ভালো করছে না বলেই হয়তো একথা আসছে। ভবিষ্যতে যদি সেরকম কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয় তাহলে হয়তো হতেও পারে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts