মুস্তাফিজই ম্যাচ সেরা, হায়দরাবাদের জয় (ভিডিওতে দেখুন)

মুস্তাফিজই ম্যাচ সেরা, হায়দরাবাদের জয় (ভিডিওতে দেখুন)
Share Button

প্রথমে বল হাতে মুস্তাফিজের অসাধারণ বোলিং। পরে ব্যাট হাতে ওয়ার্নার ও ধাওয়ানের নির্ভরযোগ্য ব্যাটিং। সব মিলিয়ে আইপিএলে দাপটে সঙ্গেই জিতেছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। শনিবার রাতে রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে ৫ উইকেটে পরাজিত করেছে মুস্তাফিজের সানরাইজার্স। পাঁচ ম্যাচে হায়দরাবাদের এটি তৃতীয় জয়। অন্যদিকে পাঁচ ম্যাচে পাঞ্জাবের এটি চতুর্থ হার।

টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ১৪৩ রান সংগ্রহ করে পাঞ্জাব। জবাবে ১৩ বল হাতে রেখেই ৫ উইকেটে ১৪৬ রান সংগ্রহ করে হায়দরাবাদ। ৪ ওভারে এক মেডেনসহ মাত্র ৯ রানের বিনিময়ে দুটি উইকেট নেয়ার সুবাদে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেছেন মুস্তাফিজুর রহমান।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন সানরাইজার্সের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার ও শিখর ধাওয়ান। উদ্বোধনী জুটিতে তারা করেন ৯০ রান।

৩১ বলে ৫৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে বিদায় নেন ওয়ার্নার। যার মধ্যে ছিল সাতটি চার ও তিনটি ছ্ক্কার মার। ৪৪ বলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন ধাওয়ান। শেষের দিকে ২০ বলে ২৫ রান করে ইংলিশ অধিনায়ক মরগ্যান। তবে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান হেনরিকস (৫) ও ওঝা (২)। পাঞ্জাবের হয়ে একটি করে উইকেট নেন সন্দীপ শর্মা, মুহিত শর্মা ও ঋষি ধাওয়ান।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ১৪৩ রান করে পাঞ্জাব। দলের হয়ে মার্শ ৪০, প্যাটেল অপরাজিত ৩৬, ভোহরা ২৫, নাইক ২২ রান করেন। সানরাইজার্সের হয়ে বল হাতে চমক দেখান বাংলাদেশের মুস্তাফিজের রহমান। চার ওভারে মাত্র নয় রান দিয়ে নেন দুটি উইকেট।

এর মধ্যে ছিল একটি মেডেন ওভার। প্রথম ওভার মেডেন। দ্বিতীয় ওভারে এক রান, তৃতীয় ওভারে দুই রান। চতুর্থ ও ইনিংসের শেষ ওভারে দেন ৬ রান, তবে এই ওভারে তুলে নেন একটি উইকেট। চলতি আইপিএলে এটাই সবচেয়ে সেরা ইকোনমি বোলিং। চার ওভারে মুস্তাফিজ একটি চার ও ছক্কাও হজম করেনি। ওভার প্রতি রান দিয়েছেন ২.২৫, সত্যিই বিস্ময়জাগানিয়া। সেখানে সানরাইজার্সের অন্যান্য বোলাররা রান দিয়েছেন হাতেম তাঈয়ের মতো। চার ওভারে ৩৭ রানে ভুবনেশ্বর পেয়েছেন এক উইকেট। চার ওভারে ৩৩ রান দিয়ে হেনরিকস পেয়েছেন দুটি উইকেট। আর স্রান ৩৩ ও হুদা ৩০ রান দিয়েও পাননি উইকেটের দেখা।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts