মুস্তাফিজদের হারিয়ে শেষ চারে সাকিবরা

মুস্তাফিজদের হারিয়ে শেষ চারে সাকিবরা

আইপিএলের প্রথম মুখোমুখি লড়াইয়ে মুস্তাফিজুর রহমানের দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে ৮ উইকেটে হারিয়েছিল সাকিব আল হাসানের দল কলকাতা নাইট রাইডার্স। এবার সেই হারের প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগ ছিল মুস্তাফিজদের সামনে। কিন্তু ফিরতি লেগের ম্যাচেও হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো মুস্তাফিজের দল হায়দ্রাবাদকে। ২২ রানের জয় দিয়ে প্লে-অফও নিশ্চিত করে ফেলেছে সাকিবের দল কলকাতা।

ঘরের মাঠে পিচের সহায়তা পাচ্ছেন না বলে খানিকটা অসন্তোষই প্রকাশ করেছিলেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের খেলোয়াড়রা। আজ বাঁচামরার লড়াইয়ে তাই হয়তো বেশ সতর্কই ছিলেন ইডেন গার্ডেনসের কিউরেটর। কলকাতার স্পিন নির্ভরতার কথা মাথায় রেখে রীতিমতো ঘূর্ণি বিষই বানিয়েছিলেন তিনি। আর সাকিব, নারাইনের সেই ঘূর্ণিতে দাঁড়াতেই পারলেন না হায়দ্রাবাদের ব্যাটসম্যানরা। ১৭২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রানেই থেমে গেল মুস্তাফিজদের ইনিংস।

দারুণ ফর্মে থাকা ডেভিড ওয়ার্নার মাত্র ১৮ রান করেই সাজঘরে ফেরেন চতুর্থ ওভারে। দ্বিতীয় উইকেটে ৫৮ রানের জুটি গড়ে অবশ্য ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন শিখর ধাওয়ান ও নামান ওঝা। কিন্তু দ্বাদশ ওভারে ধাওয়ান ৫১ রান করে আউট হয়ে যাওয়ার পর ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে হায়দ্রাবাদ। এরপর আর কোনো বড় জুটিই গড়ে তুলতে পারেনি তারা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে হারাতে ১৪৯ রানেই শেষ হয় হায়দ্রাবাদের ইনিংস।

কলকাতার পক্ষে দারুণ বোলিং করে তিনটি উইকেট নিয়েছেন সুনীল নারাইন। সাকিব নিয়েছেন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উইকেট। শুরুতেই তিনি ফিরিয়েছিলেন ওয়ার্নারকে। ৪ ওভার বল করে সাকিব দিয়েছেন ৩৪ রান। কলকাতার আরেক স্পিনার কুলদীপ যাদব নিয়েছেন দুটি উইকেট।

১৪ ম্যাচ শেষে কলকাতা ও হায়দ্রাবাদ, দুই দলেরই সংগ্রহ ১৬ পয়েন্ট। তবে রানরেটের ব্যবধানে এগিয়ে আছে হায়দ্রাবাদ। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে গুজরাট লায়নস। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ও দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের মধ্যকার ম্যাচে জয়ী দল চলে যাবে শেষ চারে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts