যে কারণে অধিনায়ক হতে চান না সাকিব!

অধিনায়ক হতে চান না সাকিব!

বেশ কিছু দিন থেকেই ক্রিকেট পাড়ায় গুঞ্জন চলছিল, বিশ্বকাপের পর অবসরে যাচ্ছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। বাংলাদেশের অনেক মিডিয়া এ নিয়ে ফলাও করে খবরও ছেপেছে। কিন্তু সে গুঞ্জন এখনও বাস্তবে রুপ নেয়নি। তবে মাশরাফি যদি অবসর নিয়েই নেয় সে ক্ষেত্রে কে হবেন পরিবর্তী অধিনায়ক? এমন প্রশ্ন এখন সবার মনেই ঘুরপাক খাচ্ছে। আর এ ক্ষেত্রে অধিনায়ক হিসেবে সাকিব ও রিয়াদের নাম উঠে আসছে।

অধিনায়কত্বের বিষয়ে রিয়াদ এখন পর্যন্ত কোন কথা না বললেও সাকিব বলেছেন অধিনায়ক হতে চান না তিনি। কারণ অধিনায়ক হলে অনেক দায়িত্ব বেড়ে যাবে বলে মনে করেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

একটি জাতীয় দৈনিককে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেছেন, আসলে অধিনায়ক হওয়ার কোনো ইচ্ছা নেই। খোলামেলাই বলি, আমি এখন ওইভাবে চিন্তা করি না। নিজেকে বাংলাদেশ দলের ভবিষ্যৎ অধিনায়ক হিসেবেও দেখি না। আমার আসলে অধিনায়ক হওয়ার ইচ্ছা নেই।

এক সময় তিনি বাংলাদেশের অধিনায়ক ছিলেন, কিন্তু এখন কেন হতে চান চান না এমন প্রশ্নের জবাবে সাকিব বলেন, এখন চিন্তাভাবনা আলাদা। এখন চিন্তা করি দলের জন্য যতটুকু অবদান রাখা দরকার, ওইভাবে করতে চাই। অধিনায়ক হলে অনেক দায়িত্ব বেড়ে যাবে। পরিবার আছে, বাচ্চা হয়ে গেছে, আমি চাই পরিবারকে একটু বেশি সময় দিতে।

মাশরাফিকে সফল অধিনায়ক উল্লেখ করে তিনি বলেন, কোচ, ক্যাপ্টেন, টিম ম্যানেজমেন্ট এবং পারফরম্যান্স সবকিছু মিলেই একটা দল ভালো খেলে। অবশ্যই কোচ এবং ক্যাপ্টেনকে অনেক বেশি সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সম্পৃক্ত থাকতে হয়। সেদিক থেকে দেখলে মাশরাফি ভাই অবশ্যই অনেক সফল। কোচের সঙ্গে উনার বোঝাপড়াটা ভালো আছে। দুইজন দুইজনকে বোঝে। আমার কাছে মনে হয় দলের জন্য এটা ভালো দিক।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment