রায়না ও যুবরাজ বাদ পড়েছে যে কারণে

রায়না ও যুবরাজ বাদ পড়লো যে কারণে

শ্রীলঙ্কার সঙ্গে একদিনের সিরিজে দলে নেই সুরেশ রায়না ও যুবরাজ সিংহ। কেন দলে জায়গা হল না তাঁদের? সাম্প্রতিক ফর্ম, নাকি দলের পরিকল্পনার সঙ্গে খাপ না খাওয়া। বিসিসিআই সূত্রে জানা যাচ্ছে, এ সব কিছুই নয়। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, দু’জনের বাদ পড়ার কারণ আসলে একটাই— ‘ইয়ো ইয়ো’।

বিসিসিসিআইয়ের এক আধিকারিক জানিয়েছেন , ফিটনেস টেস্টে পাশ না করতে পারাই দুই সিনিয়র খেলোয়াড়দের দলে অন্তর্ভুক্তি না হওয়ার কারণ। এই ফিটনেস টেস্টের নামই ‘ইয়ো ইয়ো’। ২০ মিটার দূরত্বের দুটি দাগের মাঝে দৌড়তে হয় খেলোয়াড়দের। ‘বিপ’ শব্দ শুনলে দ্রুত ঘুরতে হয়। এই পরীক্ষার ভিত্তিতেই নির্বাচন করা হয় তাঁদের।

একটি সফটওয়্যার এই খেলোয়াড়দের পারফরম্যাম্স জরিপ করে নম্বর দেয়। সেই নম্বর কোনও ভাবে ১৯.৫-এর কম হয়ে গেলে সেই খেলোয়াড়কে ফিটনেস পরীক্ষায় অকৃতকার্য বলে ধরে নেওয়া হয়। রায়না ও যুবি দু’জনেই সেই লক্ষ্য়পূরণে ব্যর্থ।

কারা এই মুহূর্তে দলের সবচেয়ে ফিট খেলোয়াড়? তালিকায় প্রথমেই রয়েছে অধিনায়কের নাম। সঙ্গে ‘স্যার’ জাদেজাও আছেন। আছেন মণীশ পাণ্ডে। বাকিরা এঁদের মতো ফিট না হলেও ন্যূনতম যোগ্যতা অর্জনকারী নম্বর টপকে যান।

প্রসঙ্গত, এই টেস্ট নয়ের দশকেও ছিল। তখন একে ‘বিপ’ টেস্ট বলা হত। এরই আধুনিক সংস্করণ ‘ইয়ো ইয়ো’। তবে নয়ের দশকে ভারতীয় খেলোয়াড়রা কেউই বিরাট ফিট ছিলেন না। ব্যতিক্রম অবশ্যই মহম্মদ আজহারউদ্দিন কিংবা অজয় জাদেজা। এখন সেই চিত্র একেবারেই বদলে গিয়েছে। বিসিসিআইয়ের দৃঢ় সিদ্ধান্ত, ফিটনেসের ব্যাপারে কোনও আপোস করা হবে না।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts