কী করলেন মারাডোনা? কেন পুলিশ ডাকলেন তাঁর বান্ধবী রোকিও অলিভিয়েরা?

ম্যারাডোনার ববান্ধবী রোকিও অলিভিয়েরা

বিতর্ক যেখানে। দিয়েগো মারাডোনাও সেখানে। ফুটবলার জীবনে বহুবার তিনি ঝামেলায় জড়িয়েছেন। হাল আমলেও ফুটবলের রাজপুত্রকে তা়ড়া করে বেড়াচ্ছে বিতর্ক আর বিতর্ক।

এ বার বান্ধবী রোকিও অলিভিয়েরার সঙ্গেই ঝামেলায় জড়িয়ে পড়লেন মারাডোনা। ঝামেলা এতটাই গড়ায় যে, শেষমেশ পুলিশকে ডাকতে হয়। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নাপোলির জন্য অপেক্ষা করছে রিয়াল মাদ্রিদ। ইতালির ক্লাবটিকে সমর্থন করার জন্যই মাদ্রিদে পা রেখেছেন মারাডোনা। এই নাপোলি ক্লাবেই আগে খেলেছিলেন মারাডোনা। বাঁ পায়ের মহানায়কের জন্যই নাপোলি উঠে এসেছে পাদপ্রদীপের আলোয়। ইতালির ক্লাবটির প্রধান কর্তার অনুরোধেই মাদ্রিদে এসেছেন আর্জেন্তাইন মহানায়ক।

 

বান্ধবী রোকিওর সঙ্গে মাদ্রিদের একটি নামী হোটেলে উঠেছেন মেক্সিকো বিশ্বকাপের নায়ক। বান্ধবীর সঙ্গে প্রেম ভালবাসায় মেতে উঠলেও হঠাৎই মারাডোনার ‘কুখ্যাত’ মেজাজ চড়ে যায়। শুরু হয়ে যায় রোকিওর সঙ্গে ‘‌উত্তপ্ত বাদানুবাদ’। একসময়ে রোকিওই পুলিশকে ফোন করে ডেকে নেন হোটেলে। পুলিশ হোটেলে এলে মারাডোনার বান্ধবী জানান, তিনি আক্রান্ত। মারাডোনা ও রোকিওকে জিজ্ঞাসা করার পরে পুলিশ বুঝতে পারে বিষয়টি গুরুতর নয়। তাই পুলিশের তরফে কোনও ব্যবস্থাই নেওয়া হয়নি। পুলিশি জেরায় মারাডোনা বা রোকিও কেউই একে অপরের নামে অভিযোগ করেননি। ঘণ্টাদুয়েক হোটেলে থাকার পরে চলে যায় পুলিশ।

এখানেই বিতর্কের শেষ নয়। স্প্যানিশ টেলিভিশন চ্যানেলের এক সাংবাদিক খবর সংগ্রহ করতে এসে মারাডোনার সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন। সেই সাংবাদিকটি বলেছেন, মারাডোনাই তাঁকে হেনস্থা করেছেন।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts