রাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮-কে কার মুখোমুখি

Russia world cup 2018
Share Button

বাছাই পর্ব থেকে উঠে আসা ৩২টি দল, ১২টি ভেন্যু ও ১টি ট্রফি সবই যেন প্রস্তুত এখন শুধু ক্ষন গণনার পালা;২১তম ফুটবল বিশ্বকাপের কথাই বলছি। রাশিয়ায় অনুষ্ঠেয় আগামী বছরের ১৪ই জুন থেকে শুরু হতে যাওয়া আসরের ঢামাডোল অনেক আগেই বাজতে আরম্ভ করেছে।ইতিমধ্যেই বিশ্বকাপের লোগো ও অফিসিয়াল পোস্টার উন্মোচন করা হয়েছে। কে কার মুখোমুখি হচ্ছে, কে যাবে দ্বিতীয় রাউন্ডে, কে মুখোমুখি হবে কোয়ার্টারে।

সেমিতেই বা উঠবে কারা এবং ফাইনালে সোনালি ট্রফিটার ছোঁয়া নেবে কোন দল- এসব হিসাব-নিকাশ এখন মানুষের মুখে মুখে। সেই ভাবনায় একটু অগ্রগতি এনে দিতেই গত শুক্রবার রাজধানী মস্কোতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের জমজমাট ড্র অনুষ্ঠান।

মস্কোর লুজিনিকি স্টেডিয়ামে সৌদি আরব বনাম স্বাগতিক রাশিয়ার মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদাকর আসর বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮’র। একই ভেন্যুতে ১৫ই জুলাই অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল ম্যাচ। অক্টোবর ২০১৭ পর্যন্ত ফিফা র‍্যাংকিং বিবেচনায় ৩২টি দলকে আটটি গ্রুপে বিভক্ত করে পূর্ণাঙ্গ সূচিও ঘোষণা করেছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ফিফা। ফিফার নিয়ম অনুসারে স্বাগতিক রাশিয়া থাকছে ১নম্বর গ্রুপে অর্থাৎশীর্ষ বাছাইয়ে।

এদিকে, ২৮ বছর পর আবারও বিশ্বকাপে ফিরেছে মিশর, সাথে থাকছে বড় চমক লিভারপুল তারকা মোহাম্মদ সালাহ। ইতিহাসের সবচেয়ে ছোট জাতি হিসেবে এবারের বিশ্বকাপে অংশগ্রহন করছে আইসল্যান্ড। তবে ইতিমধ্যেই অঘটনের বড় তকমা লাগিয়ে আসর থেকে বিদায় নিয়েছে চারবারের বিশ্বকাপজয়ী ইতালি ও দুর্দান্ত ফুটবল খেলা নেদারল্যান্ডস।

 

বিশ্বকাপের চূড়ান্ত গ্রুপিং

গ্রুপ : রাশিয়া, সৌদি আরব, মিশর উরুগুয়ে

স্বাগতিকদের হারানো অতটা সহজ হবে না। মিশরের জন্য বিপদ হতে পারে উরুগুয়ে ও রাশিয়া।স্বাগতিকদের বিপক্ষে উদ্বোধনী ম্যাচে খেলাই সৌদি আরবের জন্য আসরের অন্যতম পাওয়া হতে পারে।

গ্রুপ বি : পর্তুগাল, স্পেন, মরক্কো ইরান

প্রতিবেশি স্পেন ও পর্তুগাল উভয়ই ফেবারিট।

 গ্রুপ সি : ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, পেরু ডেনমার্ক

আসরটি ইউরোপে বলে এই গ্রুপে নিশ্চিতভাবেই  ফ্রান্স শিরোপা দৌড়ে এগিয়ে থাকবে। ৩৬ বছর পর সর্বশেষ দল হিসেবে ফিরে কিছুটা প্রভাব ফেলতে পারে পেরু। ডেনমার্ক ভাল ফুটবল খেলবে বলে আশা করা যায়।

গ্রুপি ডি : আর্জেন্টিনা, আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া নাইজেরিয়া

রূপকথার মত সুযোগ পাওয়া ১ম বিশ্বকাপটা খুব একটা সুখকর হবে বলে মনে হচ্ছে না আইসল্যান্ডের জন্য। প্রতিপক্ষ হিসেবে প্রথমেই পাচ্ছে আসরের অন্যতম জনপ্রিয় দল আর্জেন্টিনাকে। অন্যদিকে, নাইজেরিয়া ও ক্রোয়েশিয়াও অন্যতম ফুটবল পরাশক্তি। নিঃসন্দেহে বলা যায় এটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ গ্রুপ।

গ্রুপ : ব্রাজিল, সুইজারল্যান্ড, কোস্টারিকা সার্বিয়া

২০১৪ সালের বিশ্বকাপের ভরাডুবির পর দুর্দান্তভাবে ফিরে এসেছে সবচেয়ে বেশিবার শিরোপাধারীরা। সার্বিয়া ও গত আসরের কোয়ার্টার ফাইনালিস্ট কোস্টারিকা কিছুটা প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপহার দিতেই পারে।

গ্রুপ এফ : জার্মানি, মেক্সিকো, সুইডেন দক্ষিণ কোরিয়া

বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা বিনাবাধায় নক-আউট পর্ব পার হতে পারবে বলে আশা করাই যায়। সম্ভাবনার দৌড়ে কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও বাকী দল তিনটিও কম যায় না।

গ্রুপ জি : ইংল্যান্ড, বেলজিয়াম, পানামা তিউনিসিয়া

১৮ই জানুয়ারি পানামার জন্য একটি ঐতিহাসিক ও বিস্ময়কর দিন হবে প্রথমবারের বিশকাপ খেলতে আসা দলটি ওই দিন মাঠে নামবে শক্তিশালী বেলজিয়ামের বিপক্ষে। তবে এই গ্রুপ থেকে ইউরোপিয়ান দল দুটিই কোয়ালিফাই করবে বলে ধারনা ফুটবল বিজ্ঞদের।

গ্রুপ এইচ : পোল্যান্ড, সেনেগাল, কলম্বিয়া জাপান

২০০২ সালে বিশকাপে সুযোগ পেয়ে ভালই কাজে লাগিয়ে ছিল সেনেগাল। বর্তমানে ৬ নম্বর র‍্যাংকিং এ থাকা পোল্যান্ড, অন্যদিকে দক্ষিণ আমেরিকার দল কলাম্বিয়া এবং এশিয়ার জাপান কেউই কম যায় না। সর্বপরি জমজমাট ও হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখার অপেক্ষায় ফুটবলপ্রেমীরা।

 

রিপোর্টঃ জাহিদুল ইসলাম, ঢাকা
mail: Zahid150891@gmail.com

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts