বনানীতে দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের ভিডিও উদ্ধার হচ্ছে

বনানীতে দুই ছাত্রীর ধর্ষক সাফাত ও সাদমান

রাজধানীর বনানীতে ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে দুই তরুণী ধর্ষণের ভিডিওচিত্র উদ্ধারের জন্য আসামি সাফাত ও সাদমানের জব্দ করা পাঁচটি মোবাইল সেট ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পুলিশের অপরাধ ও তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) পাঠানো হচ্ছে। একই সঙ্গে পাঠানো হচ্ছে তাদের ব্যবহৃত একটি পাওয়ার ব্যাংকও। শনিবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিএমপির ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারের পরিদর্শক ইসমত আরা এমি জব্দ করা এসব নমুনা ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য আদালতের অনুমোদন চেয়ে আবেদন করেছেন। আবেদনটি রোববার আদালতে উপস্থাপন করা হবে। আদালতের অনুমতির পর তা সিআইডিতে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে বলে জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের সাধারণ নিবন্ধন (জিআর)…

Read More

যেভাবে গ্রেফতার হল সাফাতের বডিগার্ড ও গাড়িচালক

সাফাতের বডিগার্ড রহমত ও গাড়িচালক বিল্লাল

ঢাকার বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদের গাড়িচালক ও বডিগার্ডকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার রাতে রাজধানীর গুলশান ও পুরান ঢাকার নবাবপুর থেকে এ দুজনকে র‌্যাব ও পুলিশ গ্রেফতার করে। রাত ৮টার দিকে র‌্যাব-১০ এর একটি দল নবাবপুরের একটি আবাসিক হোটেল থেকে গাড়িচালক বিল্লালকে গ্রেফতার করে। এর মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যে ডিবি পুলিশ গুলশান ১ নম্বর সার্কেল থেকে বডিগার্ড রহমত আলীকে গ্রেফতার করে। তবে বডিগার্ড হিসেবে যোগদানের সময় রহমত তার প্রকৃত নাম গোপন করে আবুল কালাম আজাদ পরিচয় দেয়। টেলিফোনে যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা…

Read More

‘আমরা পুলিশের হাতে ফের ধর্ষণের শিকার হয়েছি’

বনানীতে দুই ছাত্রীকে ধর্ষনকারীরা

ধর্ষকদের নির্যাতনে শেষ রাতের দিকে আমরা দুই বান্ধবী রক্তাক্ত হয়ে রুমের মেঝেতে পড়ে আছি। যন্ত্রণায় ছটফট করছি। অথচ আমাদের এমন অসহায় অবস্থা দেখে ওরা (ধর্ষক) তখন সিনেমার খলনায়কের মতো হো হো করে হাসতে থাকে। আমরা তাদের পা ধরে কান্নাকাটি করে বলি, আল্লাহর দোহাই, অনেক হয়েছে। আর না। এবারের মতো আমাদের ছেড়ে দাও। আমরা বাড়ি যাব। এ কথা শুনে সাফাত আমার বুকে অস্ত্র ঠেকিয়ে বলে, ‘একদম চুপ। বেশি চিৎকার করলে তোদের আজ মেরেই ফেলব।’ রাজধানীর বনানীর অভিজাত হোটেলে ধর্ষণের শিকার দুই তরুণী বুধবার যুগান্তরের কাছে বর্বরতম নির্যাতনের এমন লোমহর্ষক বর্ণনা দেন।…

Read More

বনানীতে দুই তরুনী ধর্ষিত : ধর্ষকদের দুই বান্ধবীকে খুজছে পুলিশ

বনানীতে ধর্ষিত দুই তরুণীকে

মামলার আসামিদের দুই বান্ধবী নাজিয়া ও তানজি আলিশাকে খোঁজা হচ্ছে। ঘটনার দিন রাতে হোটেলে তারা উপস্থিত ছিলেন বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে। তারা মামলার তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিতে পারেন। এমনকি সাক্ষী হিসেবে তাদের জবানবন্দিও এ মামলা তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। এদিকে সোমবার মামলার বাদী তরুণীকে নিয়ে দি রেইনট্রি হোটেল পরিদর্শন করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল মতিন। বেলা পৌনে ৩টায় তিনি বাদীকে নিয়ে রেইনট্রিতে যান। পায় ৪০ মিনিট তারা হোটেলে অবস্থান করেন। এ সময় হোটেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

Read More

বন্ধুর জন্মদিনের পার্টিতে ধর্ষিত দুই তরুণী : আসামিদের গ্রেফতারে আগ্রহ নেই পুলিশের

বনানীতে ধর্ষিত দুই তরুণীকে

বন্ধুর জন্মদিনের পার্টিতে ধর্ষিত দুই তরুণী কার্যত বন্দি হয়ে পড়েছেন। মামলা করার পর থেকে তারা পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন। ধর্ষিতরা বন্দি হলেও উন্মুক্ত ঘুরে বেড়াচ্ছে অভিযুক্তরা। তাদের কেউ কেউ আবার নিজের বাসায়ও অবস্থান করছে। তারা ভাইবার-হোয়াটসঅ্যাপে সক্রিয় আছে। নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ করছে। অথচ পুলিশ তাদের খুঁজে পাচ্ছে না। এমনকি এ মামলার আসামিরা যেন বিদেশে পালাতে না পারে সেজন্য সব বিমানবন্দরে সতর্কতা জারি করেছে পুলিশ। মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদ বাসায় আছে এমন তথ্য দিয়েছেন তার বাবা আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিম। আসামি ধরতে পুলিশের আগ্রহ আছে কিনা এ নিয়ে এখন…

Read More