জুমআ’র নামাজ পরিত্যাগকারীদের বিষয়ে মহানবি যা বললেন

Juma-Namaj-fajilat

যে বা যারা জুমআর নামাজ হতে বিমুখ থেকে খেলাধুলা, ব্যবসা-বাণিজ্য অথবা পার্থিব কোনো কাজ-কর্মে নিজেকে ব্যস্ত রাখে। আল্লাহ তাআলাও তার দিক থেকে বিমুখ থাকেন। অর্থাৎ সে ব্যক্তির কোনো ইবাদাত-বন্দেগি আল্লাহর তাআলার কাছে গ্রহণযোগ্য হয় না। মুসলিম উম্মাহর জন্য আল্লাহর পক্ষ থেকে এটা অনেক বড় অভিসম্পাত। কোনো ওজর বশত জুমআ পরিত্যাগ করা, তা ভিন্ন কথা। কিন্তু সক্ষম ও সামথ্যবান সবাইকে জুমআর নামাজের প্রতি যত্নবান হওয়ার ব্যাপারে কুরআন হাদিসে সুস্পষ্ট সতর্কতা ও শাস্তির ঘোষণা দেয়া হয়েছে। হাদিসের ভাষ্য অনুযায়ী জুমআর দিন যেহেতু সপ্তাহের শ্রেষ্ঠ দিন। এ দিনের অসংখ্য ফজিলত ও গুরুত্ব রয়েছে।…

Read More