ইমো ভাইবার কি বন্ধ হচ্ছে?

Tarana halim pre active sim
Share Button

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইমো, ভাইবার ও হোয়াটসঅ্যাপ বন্ধের কোনো সিদ্ধান্ত সরকার নেয়নি বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

রোববার ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ, ইমোর মত স্মার্টফোন অ্যাপ দিয়ে ভয়েস কলের সুবিধা নিয়ে থাকে গ্রাহকরা।

গত শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ জানিয়েছিলেন, এ অ্যাপগুলোর ভয়েস কল সুবিধার কারণে আন্তর্জাতিক ফোন কলের ব্যবসায় বাংলাদেশ মার খাচ্ছে।

তিনি বলেন, এজন্য তারা একটি নীতিমালা করতে যাচ্ছে। মোবাইলফোনে এ ধরনের ‘ওভার দ্য টপ’ অ্যাপ ব্যবহার করে ভয়েস কলের সুবিধার বিষয়ে আগামী দুই এক মাসের মধ্যে একটি সিদ্ধান্তে আসতে চায় বিটিআরসি।

চেয়ারম্যানের এ বক্তব্য বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশিত বিটিআরসির বক্তব্যের প্রতি ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে।

তারানা হালিম এসব বিষয়ে বলেন, ‘অবৈধ ভিওআইপি বন্ধ হতে হবে। এক্ষেত্রে সরকারের অবস্থান হল অবৈধ ভিওআইপি’র ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স। ইমো, ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ বন্ধ করার কোনো প্রশ্নই আসে না।’

তিনি বলেন, ‘এমন কোনো সিদ্ধান্তও সরকার নেয়নি। কাজেই হোয়াটসঅ্যাপ, ইমো, ভাইবার বন্ধ হবে না, হচ্ছে না, হওয়ার প্রশ্নই আসে না।’

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts