বিকিনির ছবি মুছে দিয়ে পরে ক্ষমা চেয়েছে ফেসবুক

বিকিনির ছবি মুছে দিয়ে পরে ক্ষমা চেয়েছে ফেসবুক

মডেল টেস হলিডের বিকিনির ছবি মুছে দেওয়ায় ক্ষমা চেয়েছে ফেসবুক। সম্প্রতি এক মার্কিন নারী মডেলের এ ধরনের ছবি সরিয়ে দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার এক নারীবাদী গোষ্ঠীর তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে ফেসবুক। শেষ পর্যন্ত ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ভারী শারীরিক গঠনের ওই মার্কিন মডেলের নাম টেস হলিডে। তাঁর বিকিনি পরা ছবিযুক্ত বিজ্ঞাপন মুছে দিয়েছিল ফেসবুক। একটি বিশেষ প্রচারের জন্য অস্ট্রেলিয়ার নারীবাদী গোষ্ঠী ‘সারচেজ লা ফেম’ ওই ছবিযুক্ত বিজ্ঞাপন ফেসবুকে পোস্ট করেছিল। কিন্তু ওই ছবি ফেসবুকের নীতিমালার সঙ্গে যায় না বলে ফেসবুক তা সরিয়ে দেয়।

ছবি মুছে দেওয়ার ব্যাখ্যা হিসেবে ফেসবুক বলছে, ফেসবুকের নীতিমালা অনুযায়ী কোনো স্বাস্থ্য-বিষয়ক বিজ্ঞাপনে নিখুঁত হিসেবে বর্ণনা করা বা অত্যন্ত আপত্তিকর নির্দিষ্ট কোনো শারীরিক ওজনের ছবি প্রচার করা যাবে না। এ ছাড়া এ ধরনের ছবিযুক্ত বিজ্ঞাপন প্রচারের অনুমতি দিলে দর্শকেরা তাদের নিজের সম্পর্কে খারাপ ধারণা পেতে পারে। এ ধরনের ছবির পরিবর্তে কেউ দৌড়াচ্ছে বা সাইকেল চালাচ্ছে এ ধরনের ছবি অধিক গ্রহণযোগ্য।

তবে নারীবাদী গোষ্ঠীটির সমালোচনা ও আবেদনের পর ওই ছবিটি সরানো ভুল ছিল বলে স্বীকার করে নিয়েছে এবং এ ধরনের বিজ্ঞাপন দেওয়া যাবে বলেও অনুমতি দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। তবে সাধারণ এই ক্ষমা চাওয়ায় খুশি নয় ওই নারীবাদীরা। তারা ফেসবুকের নীতিমালায় পরিবর্তন আনার দাবি তুলেছে।

তথ্যসূত্র: ম্যাশেবল

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts