স্মার্টফোনে পর্ন দেখলেই ৫ মহাবিপদ

স্মার্টফোনে পর্ন দেখলেই ৫ মহাবিপদ
Share Button

স্মার্টফোনের চাহিদা দিনদিন বাড়ছেই। শুধু ফোন করা নয়, ইন্টারনেট, নানা রকম প্রোগ্রাম বা অ্যাপস ব্যবহার করা যায় এক ফোনেই। আর তাই সকাল বেলায় ঘুম থেকে ওঠা থেকে রাতে শুতে যাওয়া, স্মার্টফোনটা আপনার সর্বক্ষণের সঙ্গী।

কখনও তাতে অনলাইন শপিং করেন, কখনও গেম খেলেন, সিনেমা দেখেন। আর একটু আড়াল পেলে অনেকেই সার্চ করে দেখে নিন পর্ন ভিডিও। কিন্তু জানেন না এর থেকে কত বড় বিপদ হতে পারে। তাই আপনাকে জানিয়ে রাখছি পাঁচ মহাবিপদ।

১. র‍্যানসামওয়্যার :

র‍্যানস্যামওয়্যার হল এক ধরনের ম্যালিসিয়াস সফটওয়্যার যা স্মার্টফোনকে লক করে দেয়। তবে এই লক খোলা যায়, সে ক্ষেত্রে আপনাকে ঢালতে হবে কিছু টাকা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পর্ন সাইটগুলোতে ভেসে ওঠে কিছু পপ-আপ। আর তাতে ছোঁয়া লাগলেই মোবাইল লক হয়ে যেতে পারে। এরপর অনলাইনে টাকা দিলে তবেই ওই লক খোলা যায়। অনেকসময় টাকা দেয়ার পরও লক খোলে না। তখন চরম বিপদে পরেন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী।

২. চাইল্ড পর্ন :

এটা সকলেরই জানা যে, চাইল্ড-পর্ন দেখা আইনত অপরাধ। অনেক সময়ে অনিচ্ছাকৃতভাবে চাইল্ড-পর্ন সাইট খুলে যেতে পারে। হ্যাকাররা যদি জানতে পারে, কেউ স্মার্টফোনে চাইল্ড পর্ন দেখেছে তবে তাকে আইনি বিপদে ফেলতে পারে কিংবা সেই ভয় দেখিয়ে ব্ল্যাকমেল করতে পারে।

৩. অনলাইন হ্যাকিং :

মানুষকে ঠোকানোর জন্য হ্যাকাররা সবসময় ওঁৎ পেতে বসে রয়েছে। তাদের এই ফাঁদের একটা অন্যতম জায়গা হলো পর্ন সাইট। যারা নিয়মিত পর্ন দেখতে অভ্যস্ত তাদের পর্ন ভিডিও সাইটের বিজ্ঞাপন দেখিয়ে তা দেখতে বাধ্য করে হ্যাকাররা। একবার সেই সাইটে ঢুকলে হ্যাকাররা সহজেই চুরি করে নিতে পারে কোনো ব্যক্তির ব্যক্তিগত তথ্য।

৪. অনিচ্ছাকৃত পেইড সার্ভিস :

পর্ন সাইটের মাধ্যমে আপনি জড়িয়ে পড়তে পারেন নানারকম পেইড সার্ভিসে। অনিচ্ছাকৃৎভাবে মোবাইলে অ্যাক্টিভেট হয়ে যায় কিছু সার্ভিস যা আপনি জানতেও পারেন না। কিন্তু ওই সার্ভিসের জন্য কেটে নেয়া হয় টাকা।

৫. পর্ন টিকার :

পর্ন সাইটে ঢুকলে শুধু যে বিজ্ঞাপনই আপনাকে বোকা বানাবে তা নয়, দেখানো হয় নানা রকম অ্যাপ ডাউনলোড বা আপডেটের লোভ। হ্যাকারদের এই ফাঁদে পা দিলেই হাতছড়া হয়ে যাবে আপনার যাবতীয় তথ্য।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts