ডাল ও রসুনের দাম কমেছে

ডাল ও রসুনের দাম কমেছে

রাজধানীর বাজারগুলোতে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে রসুনের দাম বাড়তে থাকলেও চলতি সপ্তাহে তা কমেছে। এছাড়া আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ, আলু। এছাড়া অপরিবর্তিত রয়েছে মাছ, মাংস, মুরগি ও সবজির দাম। শুক্রবার রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

বাজারভেদে কাঁচা মরিচ ও ধনেপাতা কেজিপ্রতি ৩৫ থেকে ৪০, শালগম ১৫ থেকে ২০, বেগুন জাতভেদে ৪০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। শিম প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায়। ফুলকপি, বাঁধাকপি প্রতি পিস ২০ থেকে ২৫ টাকা। টমেটো বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা কেজিতে।

বাজার ও ডিমের আকার ভেদে ফার্মের মুরগির ডিম হালি প্রতি ৩৪ থেকে ৩৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে দেশি মুরগির ডিম ৪৫ এবং হাঁসের ডিম ৪৬ টাকা হালি দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে।

এদিকে, আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে গরু ও খাঁসির মাংস। প্রতিকেজি গরুর মাংসের দাম ৩৮০ থেকে ৪০০ এবং খাসি ৫৬০ থেকে ৫৮০ টাকা।

মুরগির দামও অপরিবর্তিত রয়েছে। আকারভেদে দেশি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৬০ থেকে ২৮০ টাকা। পাকিস্তানি মুরগি (পিস) ২০০ টাকা এবং কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৫০ টাকা দরে।

এদিকে, দেশি ডাল বিক্রি হচ্ছে ৩৮ থেকে ৪২ টাকায় যা গত সপ্তাহে ছিলো ৪৫ থেকে ৪৮ টাকা এবং মশুর ডাল বিক্রি হচ্ছে ১৪৫ টাকা কেজিতে যা গত সপ্তাহে ছিল ১৫০ টাকা।

এ সপ্তাহে ৩০ থেকে ৪০ টাকা কম দামে বিক্রি হচ্ছে রসুন। গত সপ্তাহে দেশি রসুন ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও আজ ৯০ টাকা দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে। এছাড়া আমদানিকরা রসুনও গত সপ্তাহের তুলনায় কম দাম কিনছেন ক্রেতারা।

দাম কমে যাওয়ার বিষয়ে বিক্রেতারা জানান, বাজারে রসুনের মজুদ বেড়েছে, এ কারণে দাম কিছুটা কমেছে। তবে ক্রেতারা জানান, এ সপ্তাহে দাম কিছুটা কমলেও আগামী সপ্তাহে আবার দাম বাড়বে।




 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts

Leave a Comment