‘দেয়া-নেয়া ছাড়া সিনেমা হয় না’

নায়িকা মুনমুন
Share Button

‘চলচ্চিত্রের বিষয় বোঝেনই তো, একটু পার্সোনালি বসতে চাই। এখনতো দেয়া-নেয়া ছাড়া সিনেমা হয় না।’

কথাগুলো একজন চলচ্চিত্র প্রযোজকের। তবে তার নাম জানা যায়নি। এভাবেই নায়িকা মুনমুনকে সিনেমায় কাজের সুযোগ দেয়ার কথা বলে অশ্লীল প্রস্তাব দেন ওই প্রযোজক।

পরে ওই সিনেমার প্রস্তাবই ফিরিয়ে দিয়েছেন মুনমুন। এমন অভিযোগ মুনমুন নিজেই সাংবাদিকদের কাছে করেছেন।

ঢাকাই চলচ্চিত্রের একসময়ের আলোড়ন সৃষ্টিকারী নায়িকা ছিলেন মুনমুন। মাঝে অশ্লীল সিনেমায় জড়িয়ে হারিয়ে যান তিনি।

সম্প্রতি আবারও সিনেমায় ফিরেছেন নায়িকা। অভিনয় করছেন ‘কাসার থালায় রুপালি চাঁদ’, ‘দুই রাজকন্যা’, ‘মেঘ কন্যা’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমায়।

মুনমুন বলেন, ওই প্রযোজকের নাম বলবো না। তবে তিনি এর আগেও অনেক সিনেমা নির্মাণ করেছেন। তিনি আমাকে সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব দিলে আমি রাজি হই। কিন্তু পরে আবার পার্সোলানি বসার কথা বলেন তিনি।

মুনমুন জানান, প্রযোজক তাকে বলেন, ‘ফিল্মের ব্যাপার বোঝেনই তো, একটু পার্সোনালি বসতে চাচ্ছি। এখনতো দেয়া-নেয়া ছাড়া সিনেমা হয় না।’

পরে ক্ষিপ্ত হয়ে কাজটিই ছেড়ে দেন মুনমুন।

মুনমুন বলেন, ‘এতোদিন নিজের যোগ্যতায় কাজ করে এসেছি। ভবিষ্যতেও তাই করব।’

১৯৯৬ সালে চলচ্চিত্রে নাম লেখান মুনমুন। ‘বিষে ভরা নাগীন’, ‘টারজান কন্যা’, ‘মৃত্যুর মুখে’, ‘রাজা’, ‘মরণ কামড়’, ‘রানী কেন ডাকাত’সহ ৮০টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

সর্বশেষ দেখা যায় ২০১৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘কুমারী মা’ সিনেমাতে দেখা যায় মুনমুনকে।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts