ফেসবুক লাইভে নিয়ন্ত্রণ আরোপ

isis and is name bann in facebook and fb-

ফেসবুকে এখন ভিডিও লাইফ খুবই জনপ্রিয়। অনেকেনিজের কথা বা প্রয়োজনীয় বার্তা প্রথমে ভিডিও করে পরে তা নিজের ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করেন। এটাই হচ্ছে ফেসবুক লাইভ।

তবে বর্তমানে ফেসবুক নিয়েও আতংকের শেষ নেই। আপনার সামান্য অসাবধানতার কারণে যে কোনো মুহূর্তে হ্যাক হতে পারে আপনার ফেসবুক। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে ফেসবুক সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য আমাদের বিপাকে ফেলছে।

কিছু দিন আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ৬০ কোটি ব্যবহারকারীর পাসওয়ার্ড ফাঁস করে নতুন বিতর্কে পড়েছে। পাসওয়ার্ড ফাঁস করার বিষয়টি স্বীকার করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছে ফেসবুক।এছাড়া এখন অনেকের ফেসবুক আইডি ডিজবেল হচ্ছে।

ফেসবুক লাইভ জনপ্রিয় হলেও তা এখন মন চাইলেই করতে পারবেন না। ফেসবুক লাইভ নিয়ে বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা রয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের।

‘লাইভ’ ফিচারে পরিবর্তন আনছে ফেসবুক।তাই ইচ্ছা হলেই এখন আর ফেসবুক লাইভ করতে পারবেন না। ফেসবুক লাইভে কি ধরনের ভিডিও যাবে ও কারা লাইভ করতে পারবে সে বিষয়ে ফেসবুক ইতোমধ্যেই নিয়ম-কানুন তৈরির কাজ শুরু করেছে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দু’টি মসজিদে হামলার লাইভ ভিডিও এর কারণে এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

চলতি বছরের ১৫ই মার্চ ক্রাইস্টচার্চে দু’টি মসজিদে হামলার ঘটনায় ৫০ জন প্রাণ হারান। সেই হামলার দৃশ্য ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করেছিল হামলাকারী।

হামলার দৃশ্য ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করায় বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে সমালোচনার মুখে পড়ে ফেসবুক।পরে অবশ্য সেই ভিডিও সরিয়ে ফেলে ফেসবুক।

তাই ফেসবুক লাইভের বিষয়ে এখন রূপরেখা তৈরির কাজ করছে ফেসবুক। ফেসবুকের সিওও শেরিল স্যান্ডবার্গ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ফেসবুক লাইভ কে করতে পারবেন ও কে করতে পারবেন না সে বিষয়ে রূপরেখা তৈরির কাজ চলছে।

তাই এখন আর মন চাইলেই ফেসবুক লাইফ করা যাবে না।

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts