শাকিব খানের সঙ্গে পরিচালকদের দ্বন্দ্ব মেটালেন আলমগীর

শাকিব খান বলিউড
Share Button

চিত্রনায়ক শাকিব খান তাঁর বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন। আজ সন্ধ্যায় বিএফডিসির (বাংলাদেশ ফিল্ম ডেভেলপমেন্ট করপোরেশন) বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির কার্যালয়ে আয়োজিত এক বৈঠকে চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট ১২টি সংগঠনের কাছে ক্ষমা চান এই ঢালিউড অভিনেতা।
রোববার সন্ধ্যায় শাকিব খানকে এফডিসিতে ডেকে আনেন চিত্রনায়ক আলমগীর।

আলমগীরের আহ্বানে সাড়া দিয়ে শাকিব বাংলাদেশ শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে যান। সেখানে গিয়ে আলমগীরের পরামর্শ মেনে নিয়ে তিনি ১২টি সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বসতে উদ্যোগী হন। চিত্রনায়ক আলমগীর, সোহেল রানাসহ পরিচালক সমিতির নেতাদের সঙ্গে দেখা করেন শাকিব। সে সময় চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট আরও ১১টি সংগঠনের প্রতিনিধিরাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। ওই বৈঠকে শাকিব খান বলেন, ‘ব্যক্তিজীবনের সংকটময় পরিস্থিতিতে আমি কিছুটা বিক্ষিপ্ত ছিলাম। তখন আমার আচরণ ও কথায় যদি কেউ আহত হয়ে থাকেন, তাহলে আমি দুঃখিত। চিত্র পরিচালকসহ চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট কেউ কষ্ট পেয়ে থাকলে, আমি ক্ষমাপ্রার্থী।’

শাকিব ও চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিবাদের মীমাংসা নিয়ে চিত্রনায়ক আলমগীরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমার এক কথায় শাকিব বিষয়টি মীমাংসার জন্য রাজি হয়ে যায়। শাকিবকে আমি বলেছিলাম, যেকোনো বিষয়ের একটা সীমা থাকে। সীমা লঙ্ঘন করলে ক্ষতি হয়ে যায়। এই সীমা লঙ্ঘন করা হলে আমাদের চলচ্চিত্র পরিবারের জন্য অনেক বড় ক্ষতি হবে। আমরা তো একসঙ্গে থাকতে চাই, মিলেমিশে চলতে চাই।’

এদিকে শাকিবের সঙ্গে কাজ না করার সিদ্ধান্ত বহাল আছে কি না, এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার জানান, আগামীকাল সোমবার দুপুরে তাঁদের সংগঠনসহ অন্য সংগঠনের নেতা ও গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরা বৈঠকে বসবেন। সেখানে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে যে ক্ষমা চাওয়ার পর শাকিবের সঙ্গে তাঁরা কাজ করবেন কি না। গুলজার বলেন, ‘শাকিব ভুল বুঝতে পেরে আমাদের এখানে এসেছেন, আমাদের কাছে বিষয়টি ভালো লেগেছে। শাকিব তো আমাদেরই সন্তান। আমরা খুশি হয়েছি।’

 

লেখাটি পছন্দ হলে প্লিজ Share করুন

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ :

Related posts