প্রেগন্যান্সিতে হজম সমস্যা থেকে এড়ানোর উপায়

প্রেগন্যান্সি

গর্ভবতী অবস্থায় নানান সমস্যার মধ্যে একটা বড় সমস্যা বদহজম। হরমোনের পরিবর্তন, শরীরের অন্যান্য পরিবর্তনের কারণে হজমের সমস্যা, কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যাগুলো দেখা দেয়। এই সময় খাওয়া-দাওয়ার কিছু পরিবর্তন করলে এই অস্বস্তি থেকে রেহাই পেতে পারেন। জেনে নিন এমনই কিছু উপায়, ফাইবার: প্রেগন্যান্সিতে হজমের সমস্যার কারণে কোষ্ঠকাঠিন্যে ভোগা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। এই সমস্যা এড়াতে প্রতি দিন ডায়েটে অন্তত ২৫ গ্রাম ফাইবার রাখুন। ফল, সব্জি, গোটা শস্য ডায়েটে থাকা জরুরি। মাংস খেলে তা যেন সুসিদ্ধ হয়। অল্প অল্প খাবার: প্রেগন্যান্সিতে বুক জ্বালা খুবই সাধারণ সমস্যা। জরায়ু বড় হয়ে গিয়ে শরীরের ভিতরের অন্যান্য অঙ্গের…

Read More

ইনসুলিন ইনজেকশন ছাড়াই নিয়ন্ত্রণে থাকবে ডায়াবেটিস

ডায়াবেটিস

ডায়াবেটিসের রোগীদের জন্য সুখবর নিয়ে আসছেন বিজ্ঞানীরা। নিয়মিত ইনসুলিন ইনজেকশন নিয়ে শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে না এখন আর। মার্কিন প্রদেশের একদল গবেষক বিরাট সাফল্য পেয়েছেন ডায়াবেটিস রোগীর শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ রাখার একটি ভিন্ন পদ্ধতি আবিষ্কারে। এই নতুন আবিষ্কারে আর প্রত্যেক দিন নিজের শরীরে যন্ত্রণাদায়ক ইনসুলিন ইনজেকশন নিতে হবে না। জানা যায়, আমেরিকার মেরিল্যান্ডে অবস্থিত ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ বায়োমেডিক্যাল ইমাজিং অ্যান্ড বায়ো ইঞ্জিনিয়ারিং (এনআইবিআইবি)-এর একদল গবেষক এ ব্যাপারে গবেষণা চালাচ্ছিলেন। ওই প্রতিষ্ঠানের এক কর্তা রিচার্ড লিপম্যান জানিয়েছেন, সপ্তাহে মাইক্রো নিডলের সাহায্যে একটি প্যাচ অ্যাপ্লিকেশন শরীরে প্রয়োগ করতে হবে।…

Read More

দুধ খাওয়ার আগে সাবধান! বিপদ ডেকে আনছেন না তো?

জেনে নিন দুধ থেকে কী বিপদ হতে পারে

মানুষের শরীরে সঠিক পুষ্টির জোগান দিতে দুধের জুড়ি নাই। কিন্তু সেই দুধই হয়ে উঠতে পারে বিপদের কারণ! এমনটাই জানাচ্ছে সাম্প্রতিক একটি গবেষণা। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, বেশি দুধ পাওয়ার জন্য অনেক সময়ই গবাদি পশুদের নানা রকম স্টেরয়েড ও হরমোন ইনজেকশন দেওয়া হয়। এর থেকেই হতে পারে সমস্যা। সাধারণত দুধের জোগান বাড়াতে অক্সিটোসিন ইনজেকশন দেওয়া হয়। সেই দুধ বা দুধজাত সামগ্রী খেলে বড় ক্ষতি হতে পারে। দিল্লির চিফ ইনফার্টিলিটি ও আইভিএফ স্পেশালিস্ট ইন্দিরা আইভিএফ হাসপাতালের চিকিৎসক অরবিন্দ বৈদ্য জানাচ্ছেন, অক্সিটোসিন মেশানো দুধ খেলে গর্ভবতী মহিলাদের গর্ভপাত হতে…

Read More

দাম্পত্য জীবনে দৈহিক শক্তি বাড়ায় যেসব প্রাকৃতিক খাবার!

দাম্পত্য জীবন

মানব দেহের দৈহিক শক্তি বাড়াতে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পন্ন ঔষধি কৌশল এবং মনোবৈজ্ঞানিক চিকিৎসা এখন প্রায় সেকেলে হয়ে পড়েছে। তাইতো আজকাল এই শক্তি বাড়াতে প্রাকৃতিকভাবেই দৈহিক শক্তি বর্ধক খাদ্যই অনেক বেশি কার্যকারী হিসেবে বিবেচিত হয়। তাই দাম্পত্য জীবনে মিলনে ফিট থাকতে হলে আপনাকে দৈনন্দিন খাবারের প্রতি পূর্ণ মনোযোগী হতে হবে। কারণ সুখী দাম্পত্য জীবনের জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ভালো বোঝাপড়া থাকার পাশাপাশি দরকার স্বাস্থ্যকর দৈহিক সম্পর্ক। অথচ প্রায়ই দেখা যায়, দৈহিক দুর্বলতার কারণে সংসারে অশান্তি হয়, এমনকি বিচ্ছেদ পর্যন্ত হয়। তাই আগে থেকে সতর্ক থাকলেও এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি নাও হতে পারেন আপনি।…

Read More

পিরিয়ডের কোন সময় সহবাসে প্রেগনেন্সির ঝুঁকি থাকে না?

নিরাপদ সহবাস

জন্মনিয়ন্ত্রণের জন্য সকলেই গর্ভনিরোধক ট্যাবলেট কিংবা কন্ডোমের উপরই ভরসা করেন৷ কিন্তু, আধুনিক পদ্ধতি ছাড়াই সম্পূর্ণ প্রাকৃতিকভাবে জন্ম নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে৷ এই সম্পর্কে ধারনা থাকলে চিকিৎসকেরা কাছেও যাওয়ার প্র‌‌য়োজন পড়ে না৷ মহিলাদের স্বাভাবিক ঋতুচক্র প্রাকৃতিকভাবে নির্ধারিত৷ এতে এমন কিছুদিন রয়েছে, যাকে নিরাপদ দিন বা সেফ পিরিয়ড বলা হয়৷ এই দিনগুলিতে সহবাস করলেও গর্ভধারণের ঝুঁকি থাকে না৷ চিকিৎসকরা এতে অনেক সময় ক্যালেন্ডার পদ্ধতিও বলে থাকেন৷ এই পদ্ধতি কার্যকর করতে অবশ্যই জানা দরকার ঋতুচক্রের নিরাপদ দিন কোনগুলি? বিশেষজ্ঞদের মতে- এই পদ্ধতির জন্য সবার আগে জানতে হবে মাসিক ঋতুচক্র নিয়মিত হয় কিনা৷ হলে…

Read More

নতুন সঙ্গীর সাথে মিলনে তরুণদের যা ব্যবহার করা উচিত?

কনডম ব্যবহার করা

বর্তমানে তরুণ প্রজন্মের যারা যৌন জীবনে সক্রিয়, তাদের কমপক্ষে অর্ধেক পুরুষ প্রথম কারও সঙ্গে যৌন সম্পর্কের সময় কনডম ব্যবহার করেন না। একটি জরিপে দেখা গেছে, কনডম সঙ্গে রাখলে চরিত্র সম্পর্কে ভুল বোঝার সম্ভাবনা আছে, এমনটাই মনে করেন এক তৃতীয়াংশ পুরুষ। দেখা গেছে যে ইংল্যান্ডে ১৬ থেকে ২৪ বছর বয়সীদের মধ্যে প্রতি দশ জনে একজন গনোরিয়া এবং ক্ল্যামিডিয়ায় আক্রান্ত। রয়াল কলেজ অব জিপির সেক্সুয়াল অ্যান্ড রিপ্রোডাক্টিভ হেলথ সার্ভিসের ফোন জরিপে আক্রান্তরা জানিয়েছেন তারা কখনওই কনডম ব্যবহার করেননি। ইউগভ পোল এ ২০০৭ জন তরুণের যৌন আচরণ নিয়ে সেক্সুয়াল হেলথ ক্যাম্পেইন চালানো হয়।…

Read More

গর্ভবতী মায়ের বাড়তি যত্ন নিবেন যেভাবে?

নিরাপদ মাতৃত্ব

জীবনে প্রত্যেক নারীই মাতৃত্বের স্বাদ গ্রহণ করতে চান। এতে তিনি নারী জীবনের পূর্ণতা পান। তবে এটি স্বাভাবিক ঘটনা হলেও এ প্রক্রিয়া খুব সহজ নয়। দেখা যায় স্বাস্থ্যগত জটিলতা। থাকে জীবনের ঝুঁকি। গর্ভাবস্থায়, প্রসবের সময়, এমনকি প্রসবের পর ৬ সপ্তাহ পর্যন্ত এসব জটিলতা দেখা দিতে পারে। বেশিরভাগ জটিলতা আগে থেকে অনুমান করা যায় না। তবে জটিলতা সম্পর্কে সচেতন হলে এবং সময়মতো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিলে এসব অনাকাক্ষিত পরিস্থিতি সহজেই এড়ানো যায়। আমাদের দেশে অনেক মা অসচেতনতা ও কুংস্কারের কারণে প্রসবের সময় মৃত্যুবরণ করেন। কেননা নারী জীবনে গর্ভকাল অন্য সময়ের চেয়ে আলাদা। এ…

Read More

গর্ভবতী হতে ব্যর্থ হলে কী করবেন

গর্ভবতী হতে ব্যর্থ হলে

প্রত্যেক নারীর জীবনে সব থেকে বড় স্বপ্ন হল গর্ভবতী বা মা হওয়া। কিন্তু ‘পিল’ সেবন না করেও গর্ভবতী হচ্ছেন না? তাহলে জেনে নিন এমন কিছু টিপস, যা আপনাকে গর্ভবতী হতে সাহায্য করতে পারে। ‘গুড টাইমিং’ খুবই জরুরি সবার ক্ষেত্রে এ কথা সত্য না হলেও, স্বাভাবিক নিয়ম অনুযায়ী মেয়েদের মাসিকের গড় চক্রকাল ২৮ দিন। অনেকের অবশ্য মাসিক অনিয়মিতও হয়ে থাকে। তাই ‘ওভুলেশন’ বা ডিম্বোস্ফোটনের সাতদিন পর্যন্ত স্বামী বা পার্টনারের সঙ্গে সহবাস করলে একজন নারীর গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনা থাকে সবচেয়ে বেশি। ‘গুড টাইমিং’ কখন? যদিও ডিম্বোস্ফোটনের একেবারে সঠিক সময় বোঝা কঠিন, তারপরেও…

Read More

নারীদের জন্য আলাদা যেসব খাবার প্রয়োজন

নারীদের খাবার

পরিবার সদস্যদের সেবা করার জন্য নারীদের শরীর ও মন সুস্থ রাখা অত্যান্ত জরুরি। কিন্তু নারীরা পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্যের ব্যাপারে যতটা সচেতন, নিজেদের ব্যাপারে যেন ততটাই উদাসীন। অথচ তাঁরা অসুস্থ হলে পুরো পরিবারই যেন থমকে যায়। তাই নারীদের শরীর ও মন সুস্থ রাখতে যা যা খাওয়া প্রয়োজন, জেনে নিন আজকের প্রতিবেদন থেকে। কলা কলায় রয়েছে প্রচুর পটাশিয়াম, যা স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়। তাছাড়াও কলা হৃদপিণ্ডকে সুরক্ষা করে উচ্চ রক্তচাপকে স্বাভাবিক রাখে। এ তথ্য জানা গেছে পুষ্টি সমিতির করা এক সমীক্ষা থেকে। কাজেই নারীরা এ সব খাবার নিয়মিত খেলে নিজেরাও সুস্থ থাকবেন, সুস্থ…

Read More

অতিরিক্ত সহবাস করলে এই অসুখ হতে পারে!

মাত্রারিক্ত সহবাস

সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরেই প্রমাদ গুনলেন ২৯ বছরের যুবকটি। বাঁ চোখে কিছুই দেখতে পাচ্ছেন না তিনি! অথচ চোখ নিয়ে কোনও সমস্যাই ছিল না তাঁর। পুরো বিষয়টিই তাঁর কাছে তখন এক দুর্ভেদ্য় ধাঁধার মতো মনে হচ্ছে। এর পর তড়িঘড়ি ক্লিনিকে ছোটা। চিকিৎসকরাও কিছু ধরতে পারছিলেন না। দীর্ঘ আলোচনার পরে দিন তিনেক বাদে সামনে আসে আসল সত্য। আর তা সত্যিই চোখ কপালে তোলার মতো। ঘটনার আগের দিন সন্ধেবেলা বান্ধবীর সঙ্গে সহবাস করার ফলেই তাঁর বাঁ চোখের দৃষ্টিশক্তি চলে গিয়েছে! ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর থেকে জানা যাচ্ছে, প্রথমদিন যে চিকিৎসক ওই ক্লিনিকে…

Read More