শাজনীন ধর্ষণ ও হত্যাকারী শহীদুলের ফাঁসি কার্যকর

শাজনীন ধর্ষণ ও হত্যাকারীর ফাঁসি

আলোচিত শাজনীন তাসনিম রহমানকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় আসামি শহীদুল ইসলামের ফাঁসির রায় কার্যকর হয়েছে। কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. মিজানুর রহমান জানান, বুধবার রাত পৌনে ১০টায় কাশিমপুর কারাগারে ফাঁসি কার্যকর করা হয়। এ সময় গাজীপুরের সিভিল সার্জন মো. মঞ্জুরুল হক, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. রাহেনুল ইসলাম, জেলার বিকাশ রায়হানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। জেলার জানান, বুধবার দুপুরে শহীদুলের ছোট ভাই মুহিদুল ইসলাম, তার স্ত্রী, খালা, ছোট বোনসহ অন্যান্য স্বজন তার সঙ্গে কারাগারে শেষ দেখা করেছেন। মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, ফাঁসি কার্যকরের পর আনুষ্ঠানিকতা শেষে তার…

Read More

পিলখানা হত্যা মামলায় ১৩৯ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছে হাইর্কোট

পিলখানা ট্র্যাজেডি

পিলখানা ট্র্যাজেডির ঘটনায় ৫৭ সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৪ জনকে হত্যার মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১৫২ জনের মধ্যে সাজা বহাল রাখা হয়েছে ১৩৯ জনের। এছাড়া আসামি ও রাষ্ট্রপক্ষের আংশিক আপিল গ্রহণ করে ১৮৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার বিচারপতি মো. শওকত হোসেনের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ এ রায় দেন। রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের আইনজীবী এবং গণমাধ্যমকর্মীদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন হাইকোর্টের বিচারপতি মো. শওকত হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বিশেষ (বৃহত্তর) বেঞ্চ। বেঞ্চের অন্য দুই সদস্য হলেন- বিচারপতি মো. আবু জাফর সিদ্দিকী ও বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার। সোমবার বেলা ২টা ৩৫ মিনিট থেকে আসামিদের…

Read More

মিতু হত্যা মামলায় মুসার ভাইয়ের জামিন

মিতু হত্যা মামলার আসামি সাকু

চট্টগ্রামের চাঞ্চল্যকর মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলার পলাতক আসামি মুসার ভাই সাইদুল আলম সিকদার ওরফে সাকুকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার বিচারপরিত এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি শহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এ সময় আদালতে আসামিপক্ষে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট কুমার দেবুল দে এবং   রাষ্ট্রপক্ষে সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোর্শেদ। উল্লেখ্য, গত বছরের ৫ জুন প্রকাশ্যে মিতুকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করা হয় সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতুকে। পুলিশের ভাষ্য অনুযায়ী, এ ঘটনার মাস্টারমাইন্ড হচ্ছে মুসা ওরফে আবু মুসা।  তার নির্দেশেই মিতুকে…

Read More

সরকারকে এসকে সিনহার উল্টো হুমকি!

এসকে সিনহা

প্রধান বিচারপতি ‘ভুল বোঝাবুঝি’র অবসান ঘটিয়ে তার মেয়াদ পূর্ণ করতে চান। রায়ের ব্যাপারে সরকারের আপত্তি রিভিউ পিটিশন আকারে দাখিল করারও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। প্রধান বিচারপতি বলেন, রায়ের প্রতিক্রিয়ার জবাবে আমি পদত্যাগ করলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে সরকার। কারণ, এটা একটা জাতীয় ইস্যু হয়ে গেছে। সারা বিশ্ব দেখছে। এখন আমি পদত্যাগ করলে তা হবে চাপের মুখে। বিশ্বে এটা খারাপ নজির হিসেবে চিহ্নিত হবে। ড. রিজভী তাঁকে বলেন, বিষয়গুলো নিয়ে তিনি হাইকমান্ডে কথা বলবেন। উল্লেখ্য, ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ সালে বর্তমান প্রধান বিচারপতির মেয়াদ শেষ হবে। গত ২২ আগস্ট প্রধান বিচারপতির খাস কামরায় প্রধানমন্ত্রীর…

Read More

প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার আয়-ব্যায় খতিয়ে দেখছে এনবিআর ও বাংলাদেশ ব্যাংক

এসকে সিনহা

প্রধান বিচারপতির পরিবারের আর্থিক বিষয়াদি খতিয়ে দেখছে জাতীয রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এবং বাংলাদেশ ব্যাংক। বিচারপতি সিনহা হাইকোর্টে বিচারপতি হিসেবে শপথ নেওয়ার আগে যথাযথ ভাবে আয়কর দিয়েছেন কিনা তা খতিয়ে দেখছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। এরই সঙ্গে তাঁর স্ত্রী, দুই কন্যা এবং তাঁর শ্যালকের বার্ষিক আয়কর বিবরণী নিরীক্ষা করছে তারা। বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার দুই কন্যা। একজন ভারতে থাকেন, অন্যজন থাকেন অস্ট্রেলিয়ায়। তারা কীভাবে চলেন, বাংলাদেশ থেকে বৈধ অবৈধ পথে তাঁদের কোনো টাকা পয়সা পাঠানো হয়েছে কিনা। সে ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এনবিআরের চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান বাংলা ইনসাইডারকে বলেছেন, ‘জাতীয়…

Read More

আরাফাত সানির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

আরাফাত সানি ও তার প্রেমিকা

যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। রোববার অভিযোগ গঠনের (চার্জশিট) ধার্য দিনে উপস্থিত না থাকায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন ঢাকা মহানগর হাকিম জাকির হোসেন টিপু। এদিন আদালতে সানির বিরুদ্ধে নাসরিন আক্তারের যৌতুকের জন্য নির্যাতনের মামলার অভিযোগ (চার্জশিট) গঠন করা হয়। মামলার অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর নাসরিন আক্তারের সঙ্গে সানির পাঁচ লাখ এক টাকার দেনমোহরানায় বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে ২০১৫ সালের ২৯ জুলাই ক্রিকেটার সানি ২০ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি করেন। যৌতুকের…

Read More

বনানীতে দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের ভিডিও উদ্ধার হচ্ছে

বনানীতে দুই ছাত্রীর ধর্ষক সাফাত ও সাদমান

রাজধানীর বনানীতে ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে দুই তরুণী ধর্ষণের ভিডিওচিত্র উদ্ধারের জন্য আসামি সাফাত ও সাদমানের জব্দ করা পাঁচটি মোবাইল সেট ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পুলিশের অপরাধ ও তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) পাঠানো হচ্ছে। একই সঙ্গে পাঠানো হচ্ছে তাদের ব্যবহৃত একটি পাওয়ার ব্যাংকও। শনিবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিএমপির ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারের পরিদর্শক ইসমত আরা এমি জব্দ করা এসব নমুনা ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য আদালতের অনুমোদন চেয়ে আবেদন করেছেন। আবেদনটি রোববার আদালতে উপস্থাপন করা হবে। আদালতের অনুমতির পর তা সিআইডিতে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে বলে জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের সাধারণ নিবন্ধন (জিআর)…

Read More

ধর্ষণের পর দুই তরুণীকে জন্মনিয়ন্ত্রক বড়ি খাওয়ানো হয়

বনানীতে দুই ছাত্রীকে ধর্ষনকারীরা

জন্মদিনের পার্টিতে দুই তরুণীকে রাতভর ধর্ষণ করেই ক্ষান্ত হয়নি দুই ধর্ষক সাফাত আহমেদ ও তার বন্ধু নাঈম আশরাফ (প্রকৃত নাম আবদুল হালিম)। ধর্ষণের পর গর্ভধারণ রোধে দুই তরুণীকে সেদিন জোর করে জন্মনিয়ন্ত্রক বড়ি খাওয়ায় তারা। ধর্ষিত দুই তরুণীর এক চিকিৎসক বন্ধু সেই বড়ি খাওয়ার জন্য নিষেধ করে। এ কারণে সেই বন্ধুকে মারধর করে ইয়াবা খেতে বলে। পরে সেই ইয়াবা খাওয়ার ভিডিও ধারণ করে সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল। তারপর সাফাত ও নাঈম বলে, ‘এই ঘটনা যদি কাউকে বলিস, তবে ইয়াবার মামলা দিয়ে পুলিশে ধরিয়ে দেব। তোদের ইয়াবাখোর বানিয়ে দেব।’ জন্মনিয়ন্ত্রক বড়ি খাওয়ানোর…

Read More

যেভাবে গ্রেফতার হল সাফাতের বডিগার্ড ও গাড়িচালক

সাফাতের বডিগার্ড রহমত ও গাড়িচালক বিল্লাল

ঢাকার বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদের গাড়িচালক ও বডিগার্ডকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার রাতে রাজধানীর গুলশান ও পুরান ঢাকার নবাবপুর থেকে এ দুজনকে র‌্যাব ও পুলিশ গ্রেফতার করে। রাত ৮টার দিকে র‌্যাব-১০ এর একটি দল নবাবপুরের একটি আবাসিক হোটেল থেকে গাড়িচালক বিল্লালকে গ্রেফতার করে। এর মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যে ডিবি পুলিশ গুলশান ১ নম্বর সার্কেল থেকে বডিগার্ড রহমত আলীকে গ্রেফতার করে। তবে বডিগার্ড হিসেবে যোগদানের সময় রহমত তার প্রকৃত নাম গোপন করে আবুল কালাম আজাদ পরিচয় দেয়। টেলিফোনে যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা…

Read More

বনানীতে দুই ছাত্রী ধর্ষিত : অভিযুক্ত সাফাত ও সাদমান গ্রেফতার

সাফাত আহমেদ ও সাদমান সাকিফ

রাজধানীর বনানীর একটি হোটেলে অস্ত্রের মুখে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় মূলহোতাসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- মামলার প্রধান আসামি আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত আহমেদ এবং তিন নম্বর আসামি সাদমান সাকিফ। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গুলশান জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার রফিকুল ইসলাম যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে সিলেট নগরীর পাঠানটোলা এলাকার রশিদ মঞ্জিলের দ্বিতীয় তলা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা। তিনি জানান, ডিএমপির একটি দল তাদের গ্রেফতার করে। পরে তাদেরকে ঢাকার উদ্দেশে নিয়ে…

Read More