পৃথিবী থেকে বহু দূরের গ্রহে মিলল প্রাণ!

পৃথিবীর বাইরের গ্রহে প্রাণ

পৃথিবীর বাইরে আরও একটি গ্রহে প্রাণের সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী, এই গ্রহটি ১১ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থান করছে। গ্রহের তাপমাত্রা ও পরিবেশ পৃথিবীর মতোই বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এই গ্রহের খোঁজ পেয়েছেন চিলির লা সিলা অবজার্ভেটরি রেডিয়াল ভেলোসিটি প্ল্যানেট সার্চার (হার্পস)-এর বিজ্ঞানীরা। গ্রহের নাম দেওয়া হয়েছে ‘রস ১২৮’। গ্রহটি একটি লাল তারাকে প্রদক্ষিণ করছে। বিজ্ঞানীরা জানান, লাল ক্ষুদ্র নক্ষত্রগুলি হল বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের সবচেয়ে ঠান্ডা, ফিকে ও সাধারণ তারা। এই তারাগুলির চারপাশে প্রদক্ষিণ করা গ্রহে প্রাণের সন্ধান মেলার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। বিজ্ঞানীরা আরও জানান, বর্তমানে ১১ আলোকবর্ষ দূরে থাকলেও,…

Read More

চালকবিহীন বাস শুরুতেই দুর্ঘটনার কবলে

চালকবিহীন বাস শুরুতেই দুর্ঘটনার কবলে

চালকবিহীন শাটল বাস পরীক্ষামূলক সেবা দেওয়ার প্রথম দিনেই দুর্ঘটনায় পড়েছে। লাস ভেগাসে বাসটি পরীক্ষা করার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে। তবে যানবাহনটির ভেতরে থাকা যাত্রীদের কেউ হতাহত হননি। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, দুর্ঘটনার জন্য চালকবিহীন বাসটির কোনও দায় ছিল না। লরির চালকই মূলত এর জন্য দায়ী। ওই চালক স্বয়ংক্রিয় বাসে তার লরি দিয়ে ধাক্কা দেয়। ফলে দুর্ঘটনা ঘটে। অবশ্য এর পরই লরির চালককে আটক করে পুলিশ। চালকবিহীন বাসের সামনে কিছু এলে সেটা সাথে সঙ্গে সঙ্গে যায়। বৃহস্পতিবার দুর্ঘটনার সময়ও বাসটি থেমে গিয়েছিল। তবে লরির চালক নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পারায় দুর্ঘটনা ঘটে।…

Read More

গুগল ম্যাপে দেখা যাবে পৃথিবীর বাইরের ছবিও

গুগল ম্যাপে দেখা যাবে পৃথিবীর বাইরের ছবিও

এতদিন শুধু পৃথিবীর নানা জায়গা ও সেখানে পৌঁছনোর রাস্তা দেখিয়েই ক্ষান্ত হতো গুগল ম্যাপ অ্যাপ্লিকেশনটি। এবারে তার সঙ্গে যুক্ত হল আরও একটি ফিচার। গুগল ম্যাপে এবার থেকে দেখতে পাওয়া যাবে সৌর জগতের নানা গ্রহ, নক্ষত্র, চন্দ্র। অবাক হওয়ার মতোই ব্যাপার। শনি গ্রহের নিজস্ব চন্দ্র যেমন এনকেলেডাস, টাইটান ও মিমাসকেও দেখা যাবে বলে দাবি করেছেন গুগলের প্রডাক্ট ম্যানেজার, স্ট্যাফোর্ড মারকার্ড। একটি ব্লগপোস্টে তিনি লিখেছেন, নিজের ঘরে বসেই মানুষ দেখতে পাবেন এনকেলেডাসের বরফে ঢাকা উপত্যকা। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, কুড়ি বছর আগে কেপ ক্যানাভেরল থেকে ক্যালিনি নামে যে মহাকাশযান লঞ্চ…

Read More

ভূমিকম্প সম্পর্কে ১২টি বিস্ময়কর তথ্য জেনে নিন

ভূমিকম্প

সারা বিশ্বেই বড়ো বড়ো ভূমিকম্প আঘাত হানে। ভূমিকম্প হয় বাংলাদেশেও। সম্প্রতি এধরনের ভূমিকম্পের সংখ্যাও বেড়ে গেছে। ভূমিকম্প হলে তার পরপরই এনিয়ে নানা ধরনের কথাবার্তা হয়। কিন্তু প্রাকৃতিক এই ঘটনা সম্পর্কে আমরা কতোটুকু জানি। এখানে এরকম ১২টি বিস্ময়কর তথ্য তুলে ধরা হলো: ১. সারা পৃথিবীতে বছরে লাখ লাখ ভূমিকম্প হয়। যুক্তরাষ্ট্রে ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা জিওলজিক্যাল সার্ভে বলছে, প্রত্যেক বছর গড়ে ১৭টি বড় ধরনের ভূমিকম্প হয় রিখটার স্কেলে যার মাত্রা সাতের উপরে। এবং আট মাত্রার ভূমিকম্প হয় একবার। তবে ভূমিকম্প বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বছরে লাখ লাখ ভূমিকম্প হয়। এর অনেকগুলো হয়তো বোঝাই যায়…

Read More

নতুন সাত ‘পৃথিবী’র সন্ধান, আছে পানিও!

নতুন সাত পৃথিবীর সন্ধান আছে পানিও

পৃথিবীর তিন ভাগ জল আর এক ভাগ স্থল- এ নিয়ে রোমাঞ্চিত কিংবা গর্ব করার দিন বোধহয় শেষ হয়ে এলো পৃথিবীবাসীর! নতুন সাত ‘পৃথিবী’ নাকি পানিতে টইটম্বুর হয়ে আছে! সেই পানি ঢাকা নেই কোনো পুরু বরফের চাদরে। বায়ুমণ্ডলের যে চাপ কিংবা তাপমাত্রায় পৃথিবীর সাগর-মহাসাগরের পানি তরল অবস্থায় থাকতে পারে, ঠিক সেই অবস্থা আছে বলেই সদ্য আবিষ্কৃত সাত পৃথিবীর পানিও রয়েছে একেবারে তরল অবস্থায়। সংবাদমাধ্যমে দেয়া প্রথম সাক্ষাৎকারে এসব তথ্য জানান সাত ‘পৃথিবী’র মূল আবিষ্কর্তা বিশিষ্ট জ্যোতির্বিজ্ঞানী মিশেল গিলন। ২২ ফেব্রুয়ারি ওয়াশিংটনে নাসার সদর দফতরে বসে যে ৫ বিজ্ঞানী সগর্বে ঘোষণা করেন,…

Read More

নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে প্রযুক্তি মানুষকে ধ্বংস করবে : স্টিফেন হকিং

স্টিফেন হকিং

সময়ের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং বলেছেন, মানবসভ্যতার ভবিষ্যতের জন্য প্রযুক্তিতে অবশ্যই নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিপদ নিয়েও এর আগে কথা বলেছেন হকিং। তার মতে, এ বিপদ থেকে উদ্ধারের একমাত্র আশা বৈশ্বিকভাবে তা নিয়ন্ত্রণ। তিনি বলছেন, নিউক্লিয়ার এবং বায়োলোজিক্যাল যুদ্ধের যে হুমকি রয়েছে তা থেকে বাঁচতে যুক্তি এবং বুদ্ধিমত্তা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। এখন, যেকোনোভাবে প্রযুক্তি এতটাই এগিয়ে গেছে যে, এ সংক্রান্ত আগ্রাসন আমাদের ধ্বংস করে দিতে পারে। তবে মানুষ এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে সক্ষম হবে বলেও আশা তার। তিনি বলেছেন, আমরা এমন প্রযুক্তি তৈরি করেছি যা আমাদের…

Read More

পৃথিবী আকৃতির নতুন ৭ গ্রহ আবিষ্কার (ভিডিও দেখুন)

পৃথিবী আকৃতির ৭ গ্রহ আবিষ্কার

সৌরজগতে পৃথিবীর আকৃতির সাতটি গ্রহের সন্ধান পেয়েছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। গ্রহগুলো সৌরজগতের নিকটবর্তী একটি নক্ষত্রকে ঘিরে ঘূর্ণায়মান। বিজ্ঞানীদের নতুন এ আবিষ্কার বুধবার জার্নাল ন্যাচার প্রকাশিত হয়। পাশাপাশি ওয়াশিংটনে নাসার সদরদফতরেও সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ঘোষণা দেয়া হয়। খবর বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ানের। বিজ্ঞানীরা নতুন আবিষ্কৃত গ্রহ সাতটিকে জ্যোতির্বিজ্ঞানের ইতিহাসে বিরল ঘটনা উল্লেখ করছেন। কারণ, গ্রহগুলোর আকৃতি পৃথিবীর মতো এবং সেগুলোতে পানির অস্তিত্ব থাকার ফলে আবহাওয়া প্রাণের জন্য উপযুক্ত হতে পারে বলে ধারণা করছেন। গবেষকদের মতে, সাতটি গ্রহের পৃষ্ঠতে তরল পানির স্তর থাকতে পারে। তবে সাতটির মধ্যে তিনটি গ্রহ প্রাণের বা বসবাসের উপযুক্ত হতে পারে।…

Read More

চিকিৎসায় নোবেল পেলেন জাপানের ইয়োশিনোরি ওহশোমি

ইয়োশিনোরি ওহশোমি

চিকিৎসা বিজ্ঞানে এবছর নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন জাপানের বিজ্ঞানী ইয়োশিনোরি ওহশোমি। প্রাণীকোষ কীভাবে নিজের উপাদানকে পুনঃপ্রক্রিয়াজাত করে, এই গবেষণার জন্য তিনি নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন। সোমবার থেকে ২০১৬ সালের নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা শুরু হয়েছে। প্রথম দিনে সুইডেনের কারোলিনস্কা ইনস্টিটিউট চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল বিজয়ী হিসেবে ওহশোমির নাম ঘোষণা করলো। পুরস্কার হিসেবে তিনি ৮ মিলিয়ন সুইডিশ ক্রোনার বা ৯ লাখ ৩৬ হাজার ডলার পাবেন। নোবেল কমিটির মতে, ইয়োশিনোরির গবেষণাটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা, ক্যান্সার থেকে শুরু করে পারকিনসন্স পর্যন্ত রোগগুলোর ক্ষেত্রে শরীরে কী ধরনের পরিবর্তন হয় তা বুঝতে তার গবেষণাটি সহায়তা করে। ৭১ বছর…

Read More

আকাশ পথে চলবে গাড়ি!

আকাশ পথে চলবে গাড়ি!

টেরাফুগিয়ার ট্রানজিশন যান। এটি রাস্তায় চলবে আবার আকাশেও উড়বে। সেই লক্ষ্যেই কাজ শুরু করেছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। ২০২৫ সালের মধ্যে এটি বাজারে আনার চেষ্টা চলছে। ব্যবসা ও প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট বিজনেস ইনসাইডারের তথ্য অনুযায়ী, টেরাফুগিয়ার তৈরি বর্তমান যানটির নাম হচ্ছে ট্রানজিশন। উড়ুক্কু এ যানটিতে বড় চাকা ও ভাঁজ করে রাখা যায় এমন ডানা আছে। ছোট এয়ারফিল্ড ও বড় গ্যারেজ থাকলে এটি ব্যবহার করা যায়। সত্যিকারের কোনো বড় রাস্তায় এটি ব্যবহার করা যায় না। তাই টেরাফুগিয়া কর্তৃপক্ষ ভাবছে, উড়াল গাড়িটি যদি স্বয়ংক্রিয় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত করা যায়, তবে অনেক সুবিধা হয়। এতে…

Read More

কমবে সূর্যের উত্তাপ, ২০২০ সালের মধ্যেই শুরু হবে মিনি আইস এজ

sun heat decrease

বেশ কিছুদিন ধরে সূর্যে এমন কিছু ঘটনা চোখে পড়েছে বিজ্ঞানীদের যা তাদের অত্যন্ত চিন্তিত করে তুলেছে। চারদিন ধরে কোনও সানস্পট দেখা যায়নি সূর্যের বাইরের স্তরে। সানস্পট না থাকাটা একেবারেই অস্বাভাবিক নয় তবে বিজ্ঞানীরা লক্ষ্য করেছেন একই সঙ্গে কমে গিয়েছে সোলার অ্যাক্টিভিটি। যদিও সূর্যের উপরের স্তরের সোলার অ্যাক্টিভিটি প্রতি ১১ বছর পর পর পরিবর্তিত হয় এবং এই পরিবর্তনের জন্য কিছুদিনের জন্য স্তিমিত হয় সূর্য কিন্তু বিজ্ঞানীদের ধারণা এবার পরিস্থিতি অনেকটাই অন্য রকম। আবহবিদ পল ডোরিয়ানের বক্তব্য, ২০২০ সালের মধ্যেই শুরু হয়ে যাবে ‘সোলার মিনিমাম ফেজ’ যেখানে সূর্যের প্রভাব হবে সর্বনিম্ন। এই…

Read More